সমালোচিত ভিডিওগুলো স্ক্রিপ্টেড ছিল

বিনোদন প্রতিবেদক ।

‘কে হবে মাসুদ রানা’ রিয়্যালিটি শোর অডিশনের ভিডিও এখন আলোচিত বিষয়। অনেক সমালোচনা ও বিতর্কের তোপে পড়তে হয় অনুষ্ঠানের বিচারকদের। যেখানে ছিলেন পরিচালক ইফতেখার আহমেদ ফাহমি। ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের সঙ্গে এসব প্রসঙ্গ নিয়ে কথা বললেন তিনি।

সম্প্রতি ‘কে হবে মাসুদ রানা’ রিয়্যালিটি শোর অডিশন নিয়ে একটি বিতর্ক তৈরি হয়েছে আপনিসহ আরো কয়েকজন বিচারককে নিয়ে। শুরুতে এই বিষয়টি নিয়ে আপনার মন্তব্য শুনতে চাই—

আমি সবাইকে বিষয়টি ইতিবাচকভাবেই দেখতে বলবো। এটি জনগণের প্রতিক্রিয়া। অনেকের ভালোলাগা রয়েছে। আবার অনেকে খারাপ লাগা রয়েছে। সমালোচিত ভিডিওগুলো স্ক্রিপ্টেড ছিল। আর সমালোচনা সবসময় আমাদের নতুন করে ভাবতে শেখায়। এই সমালোচনাও তেমন। যারা প্রোগ্রামের স্ক্রিপ্ট করেন তারা নতুন করে আবারো প্রোগ্রামটি সাজাবেন।

শোয়ে এই ধরনের স্ক্রিপ্ট বিষয়ে আপনাদের কোনো সিদ্ধান্ত ছিল কি-না?

আসলে এটি আমার একার শো না। তাই এখানে বিষয়টি এমন নয় যে, আমার প্ল্যানে সবকিছু ছিল। আর যখন স্ক্রিপ্ট করা হয় তখন আমরা থাকি না। শো শুরু করার আগে আমাদের বুঝিয়ে দেওয়া হয়। আর যাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা হয়েছে তাদের সঙ্গে কিন্তু আমরা পরে আবারো সরি বলেছি। কোলাকুলি করেছি। যাতে কেউ মনে কষ্ট না পায়। আসলে যে ভিডিওগুলো ভাইরাল হয়েছে সেগুলো অল্প অংশ। পুরো অংশ দেখলে হয়তো সবার কাছে বিষয়গুলো পরিষ্কার হয়ে যেত। আর সবকিছু তো শোতে দেখানো যায় না। তাহলে শোয়ের সময় হবে ২ ঘণ্টা। যে অংশটুকু দেখে সবাই সমালোচনা করছেন সেটিও স্বাভাবিক।

তাহলে এই সমালোচনা কতটুকু গঠনমূলক বলে আপনি মনে করেন?

সকল সমালোচনাই গঠনমূলক। এখন বিষয়টি হচ্ছে এক একজন এক একেকরকম করে সমালোচনা করেন। কেউ গালি দিয়ে সমালোচনা করেন, আবার কেউ বুঝিয়ে বলেন।

এ ধরনর স্ক্রিপ্টে বিতর্কের পর আপনাদের পরবর্তী স্ক্রিপ্ট পরিকল্পনা কেমন?

এটি নিয়ে আসলে যারা সংশ্লিষ্ট তারা ভালো বলতে পারবেন। আমি তো এখানে শুধু জাজ হিসেবেই রয়েছি।

এবার একটু কাজের ব্যস্ততা প্রসঙ্গে জানতে চাই—

ইউটিউবের জন্য ‘আজব বাক্স’ শিরোনামে একটি ফিকশন করলাম। এটির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে। এছাড়া চ্যানেল আইয়ের জন্য একটি কাজ করবো। ৬০ মিনিটের একটি টেলিফিল্ম নির্মাণ করবো। আরো বেশ কয়েকটি কাজের কথা চলছে। এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

সিনেমার নিয়ে কোনো নতুন খবর আছে কি-না?

এখনো নেই। তবে হয়তো শিগগিরই খবর দিতে পারবো। আগামীবছর সিনেমার পরিকল্পনা রয়েছে। গল্প ভেবে রেখেছি সবকিছু চূড়ান্ত হলে সবাইকে জানাবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *