চলন্তিকা বস্তিতে সরকারি উদ্যোগেই পুনর্বাসন করতে হবে: জি এম কাদের

বিশেষ প্রতিবেদক ।

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জি এম কাদের এমপি বলেছেন, মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে সর্বস্ব হারানো হত-দরিদ্র মানুষদের সরকারি উদ্যোগেই পুনর্বাসন করতে হবে। তিনি বলেন, হত-দরিদ্র এই মানুষদের ভোটেই সরকার নির্বাচিত হয়। অগ্নিকাণ্ডে সবহারা এই মানুষগুলোই আমাদের মূল শক্তি। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

আজ মঙ্গলবার সকালে অগ্নিকাণ্ডে ভস্মিভূত মিরপুরের চলন্তিকা বস্তির সবহারা মানুষদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণকালে জাপা চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন।

এ সময় জি এম কাদের আরো বলেন, সাধারণ মানুষের ট্যাক্সের টাকায় রাষ্ট্রীয় বাজেট তৈরি হয়। আর বাজেটে দুঃস্থ ও হতদরিদ্র মানুষের কল্যাণে বরাদ্দ থাকে। সরকারের অনেক অনেক সুবিধা থাকে যা নিঃস্ব মানুষের কল্যাণে কাজে আসে। কিন্তু আমরা নেতা-কর্মীদের দেয়া সহায়তা নিয়ে আপনাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। আমাদের সাধ্যমত সহায়তা নিয়ে দুঃস্থ মানুষের পাশে সব সময় থাকবো। তিনি আরো বলেন, সংসদেও আমরা অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের দাবিতে কথা বলবো। অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকতে জাপা নেতা-কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন জি এম কাদের।

এ সময় জাপা মহাসচিব ও বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি বলেন, অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত চলন্তিকা বস্তির জমি সরকারি খাস জায়গা। এই জমি কারো দখলে থাকতে পারে না। এই জমিতে যারা অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, সেই হতদরিদ্র মানুষদের তালিকা করে পুনর্বাসনের দাবিও জানিয়েছেন রাঙ্গা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- জাপার ভাইস চেয়ারম্যান আমানত হোসেন, মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, যুগ্ম মহাসচিব সুলতান মাহমুদ সেলিম, যুগ্মদফতর সম্পাদক এম এ রাজ্জাক খান, কেন্দ্রীয় নেতা মোহাম্মদ আলী খান, মেহেদী হাসান শিপন, মোতাহার হোসেন, রূপনগর থানা জাপার সভাপতি খলিল মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *