পুলিশকে দুর্বল ভাববেন না, গণপিটুনির ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিবেদক ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে গণপিটুনির মত ঘটনা ঘটাবে তাদের কাউকে কোনো অবস্থায় ছাড় দেওয়া হবে না। তিনি বলেছেন, পুলিশ বসে নেই, পুলিশকে দুর্বল ভাববেন না। দেশবাসীর উদ্দেশ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আপনারা ছেলেধরা গুজবে কান দেবেন না, বিশ্বাস করবেন না। কাউকে সন্দেহ হলে পুলিশে সোপর্দ করুন। কোনো সমস্যা হলে পুলিশের সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে তাদের সহযোগিতা নিন।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয় সমসাময়িক ইস্যুতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, এ যাবৎ সারাদেশে গণপিটুনিতে ৬ জন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন ১৫ জন। এসব ঘটনায় মামলা হয়েছে ৯টি, জিডি (সাধারণ ডায়েরি) হয়েছে ১৫টি, গ্রেফতার করা হয়েছে ৮১ জনকে।

তিনি বলেন, রাজধানীর বাড্ডায় গত শনিবার (২০ জুলাই) গণপিটুনিতে এক মায়ের নিহতের ঘটনায় যারা জড়িত আছে ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদের সনাক্ত করা হচ্ছে। মোবাইলের ভিডিও ফুটেজ দেখে ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে একজন ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। ৩ জনকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। আর ৩ জনকে আদালতে হাজির করা হয়েছে।

আসাদুজ্জামান খান কামাল জানান, স্কুল এবং মসজিদ-মাদরাসায় সচেতনতামূলক প্রচার চালাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া গণপিটুনিতে হত্যার মামলার চার্জশিট দ্রুত দেওয়া হবে। এসব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করা হবে। এসব ঘটনায় কোনো রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রনোদিত কি না তাও খুঁজে বের করা হবে।

গণপিটুনিতে জড়িয়ে আইন হাতে তুলে না নিতে দেশবাসীর প্রতি আহবান জানিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যারা আইন হাতে তুলে নেবে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গণপিটুনির ঘটনা বিচার বিভাগ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি অনাস্থার কারণেই হচ্ছে কি না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বসে নেই। তারা কাজ করছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সঠিকভাবে কাজ করছে। বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে কাজ করছে।ন্যায়বিচার নিশ্চিত করছে। আস্থাহীনতা নেই। এ ধরনের ঘটনায় রাজনৈতিক ইন্ধন আছে কি না জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান খান বলেন, বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি।

তিনি বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব সৃষ্টির মাধ্যমে কতগুলো অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটছে। ঘটনাগুলো কারো কাছে কাম্য নয়। সবগুলো নিছক গুজব, এগুলোর কোনো ভিত্তি নেই। আমি এর সঙ্গে জানাতে চাচ্ছি, যারা এই ধরনের গণপিটুনিতে অংশ নেন, একজন যদি এই ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটান কিংবা ১০০ জনে ঘটনা-শাস্তি কিন্তু একই রকম হবে। এই ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটালে অবশ্যই আমরা আইনের মুখোমুখি করব। আইন অনুযায়ী তাকে শাস্তি পেতেই হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ডিসি ও এসপিদের বলে দেওয়া হয়েছে তারা যেন খেয়াল রাখেন কোনো জায়গায় যেন এই ধরনের গুজব বিস্তার লাভ করতে না পারে। যেখানে গুজব সেখানেই যেন তারা অ্যাকশনে যেতে পারে, সেই ধরনের ইন্সট্রাকশন দিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমরা মসজিদের ইমাম সাহেবদের বলছি, সব জায়গায় বলছি- এই ধরনের ঘটনা যাতে না ঘটে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *