নুসরাতের শ্লীলতাহানির মামলাও নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে

বিশেষ প্রতিবেদক ।

ফেনীর সোনাগাজীর সিনিয়ার ফাযিল মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে শ্লীলতাহানির মামলায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) দেওয়া চার্জশিট (অভিযোগপত্র) গ্রহণ করেছেন আদালত। একইসঙ্গে এই মামলাটি বিচারের জন্য ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইবুন্যালে স্থানান্তর করেছেন।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ মামলাটি গ্রহণ করে আগামী ৯ জুলাই পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাকির হোসেনের আদালত শুনানি শেষে এই সিদ্ধান্ত দেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও পিবিআই পরিদর্শক শাহ আলম এ তথ্য জানিয়েছেন।

এর আগে মামলার একমাত্র আসামি মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে অভিযুক্ত করে বুধবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাকির হোসেনের আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।

গত ২৭ মার্চ সকালে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা নুসরাত জাহান রাফিকে তার কক্ষে ডেকে নিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন। এ ঘটনায় নুসরাতের মা সোনাগাজী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন। পুলিশ ওই দিনই অধ্যক্ষকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠায়।

গত ৬ এপ্রিল সকালে আলিম আরবি প্রথম পত্রের পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে যান নুসরাত। এসময় কৌশলে তাকে ভবনের ছাদে ডেকে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। সেখানে তার গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ এপ্রিল রাতে নুসরাত মারা যান।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *