সিপিএলে দুঃসংবাদ পেলেন সাকিব, সুসংবাদ আফিফের

ক্রীড়া প্রতিবেদক ।

আসন্ন ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) সপ্তম আসরে দুঃসংবাদ পেয়েছেন সাকিব আল হাসান। তবে সুসংবাদ পেয়েছেন ১৯ বছর বয়সী বাংলাদেশের তরুণ অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন ধ্রুব। সিপিএলে গতকাল দল পেয়েছেন আফিফ তবে কোনো দল পাননি সাকিব।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

শুধু বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিবই নন, বিশ্ব ক্রিকেটে পরিচিত মুখ রশিদ খান, জোফরা আর্চার, ক্রিস লিনও কোনো দল পাননি এবারের সিপিএল-এ।

বুধবার এই নিলামে দল পেয়ে গেলেন বাংলাদেশের তরুণ ক্রিকেটার আফিফ হোসেন ধ্রুব। নিলামে অবশ্য ড্রাফটে ছিল ১৯ টাইগার ক্রিকেটারের নাম। যারা হলেন-তারা হলেন- সাকিব আল হাসান, এনামুল হক বিজয়, মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাস, জাকির হাসান, আরিফুল হক, আফিফ হোসেন ধ্রুব, জুবায়ের হোসেন লিখন, তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, মোহাম্মদ মিঠুন, সাব্বির রহমান, আবুল হাসান রাজু, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আবু হায়দার রনি, সাইফ হাসান ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

নিলামে ১৩তম রাউন্ড শেষে দল পেয়ে যান অলরাউন্ডার আফিফ। তাকে দলে টেনেছে সেন্ট কিটস এন্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস। কার্লোস ব্রাথওয়েট, এভিন লুইসের সতীর্থ হলেন এই টাইগার ক্রিকেটার। গত মৌসুমে এই দলে খেলেছেন মাহমুদউল্লাহ।

অনেকেই বলছেন, সাকিবসহ অন্য তারকা ক্রিকেটাররা জাতীয় দল ও ইউরো লিগে খেলা নিয়ে ব্যস্ত থাকার সম্ভাবনা আছে এ কারণেই নাকি দলগুলো আগ্রহ দেখায়নি।

সাকিব, তামিম, মাহমুদউল্লাহ ও মেহেদী হাসান মিরাজের পর পঞ্চম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে তিনি সুযোগ পেলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে।

আফিফকে নিতে প্যাট্রিয়টসের খরচ হবে প্রায় ৮৭ লাখ টাকা। আফিফ সঙ্গী হিসেবে এই দলে পাবেন কার্লোস ব্রাথওয়েইট, এভিন লুইস, রায়াদ এমরিট, ডেভন থমাস, শেলডন কটরেল, লরি ইভান্স, ভ্যান ডার ডাসেন, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, ইসুরু উদানাদের মতো তারকাদের।

গত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ব্যাট হাতে যোগ্যতার পরিধি দেখিয়েছেন আফিফ। সিলেট সিক্সার্সের হয়ে তিনি ১২ ম্যাচে ২০.৬৬ গড় ও ১২৪.০০ স্ট্রাইক রেটে তুলেন ২৪৮ রান।

বাংলাদেশের জাতীয় দল থেকে ২০১৮ সালের শুরুতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি খেলেছেন আফিফ। টি-টোয়েন্টির সংস্করণে এ পর্যন্ত ৩১ ম্যাচ খেলে ২১.২০ গড়ে ৫০৯ রান করেছেন। যেখানে তার ব্যাটিং স্ট্রাইকরেট ১২৩.২৪। ঝুলিতে রয়েছে দুটি হাফসেঞ্চুরি। আর বল হাতে ৩১ ম্যাচে নিয়েছেন ১৫ উইকেট। সেরা বোলিং ফিগার ২১ রান খরচে ৫ উইকেট।

২০১৯ সালের সিপিএল শুরু হবে ৪ সেপ্টেম্বর এবং শেষ হবে ১২ অক্টোবর। সিপিএল সপ্তম আসরের ড্রাফটে ছিলেন ৫৩৬ ক্রিকেটার। ড্রাফটে ১৮ বাংলাদেশি ক্রিকেটারকে রাখা হয়েছিল। বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) মাধ্যমে তিনি ক্রিকেটের শিক্ষা নেন।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *