সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:১২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
যশোর বোর্ডের এসএসসি বাংলা ২য় পত্রের এমসিকিউ পরীক্ষা স্থগিত জুমা’র দিনে গোসল ও সুগন্ধির ব্যবহার সম্পর্কে যা বলেছেন বিশ্বনবি ইলিশ মাছের গড় আয়ু কত? নবজাতক শিশুর যত্নে, জন্মের পর করনীয় চুল এবং ত্বকের যত্নে থাকুক টক দই লন্ডনে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী বাবার লাশ উঠানে, রুমাল হাতে ছেলে পরীক্ষা কেন্দ্রে ঘুমধুম সীমান্তে আবারও গোলাগুলির শব্দ পা দিয়ে লিখে এসএসসি পরীক্ষা দিলেন মানিক সাবেক উপ প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত মোয়াজ্জেম হোসেনকে গার্ড অব অনার প্রদান গুয়েতেমালায় কনসার্টে পদদলিত হয়ে নিহত ৯, আহত ২০ কারাগারে বসে এসএসসি পরীক্ষা দিলেন ৩ আসামি পরীক্ষাকেন্দ্রে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ৫ শিক্ষককে অব্যাহতি করোনায় আক্রান্ত সিইসি হাবিবুল আউয়াল বেনাপোল সীমান্তে মাদকসহ আটক ১ সরকার সব দলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে বিশ্বাসী : সেতুমন্ত্রী রাঙ্গাকে অব্যাহতির কারণ জানালেন জাপা মহাসচিব নড়াইলে বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষায় দেয়া হলো দ্বিতীয় পত্রের প্রশ্ন! সারাদেশে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু রানির শেষকৃত্যে অংশ নিতে লন্ডনের পথে প্রধানমন্ত্রী
Uncategorized

চূড়ান্ত রায়েও মুজাহিদের মৃত্যুদণ্ড

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৬ জুন, ২০১৫
  • ৩৯ দেখা হয়েছে

ad7_8_2
একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদকে দেওয়া আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। আজ মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বে চার বিচারপতির বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

বেঞ্চের অপর সদস্যরা হলেন-বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা, বিচারপতি সৈয়দ মাহবুব হোসেন এবং বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

সুপ্রিম কোর্টে আপিল দাখিলের পর গত ২৯ এপ্রিল এ মামলার আপিল শুনানি শুরু হয়। পরে গত ২৭ মে নবম দিনে যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায়ের জন্য এ দিন ঠিক করেছিলেন আপিল বিভাগ।

৪৩ বছর আগে স্বাধীনতার উষালগ্নে বুদ্ধিজীবী হত্যা ও স্বাধীনতাকামীদের গণহত্যা-বিভিন্ন নির্যাতনের দায়ে সে সময় আলবদর বাহিনীর প্রধান মুজাহিদকে ২০১৩ সালের ১৭ জুলাই আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ ফাঁসির আদেশ দেন। রায়ে অপহরণ, নির্যাতন ও হত্যাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের সাতটি অভিযোগের মধ্যে পাঁচটি ঘটনায় মুজাহিদের সংশ্লিষ্টতা প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার আদেশ দেওয়া হয়।

আপিলের শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষের অন্যতম যুক্তি ছিল, বুদ্ধিজীবী হত্যাকাণ্ডের পেছনে গুপ্তঘাতক আলবদর বাহিনীর ভূমিকা অনস্বীকার্য। জামায়াতের তৎকালীন ছাত্রসংগঠন ইসলামী ছাত্রসংঘের বেশির ভাগ সদস্যই আলবদরে যোগ দিয়েছিলেন। মুজাহিদ ছিলেন ছাত্রসংঘের প্রধান। তিনি বুদ্ধিজীবী হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনা ও তা কার্যকরে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন।

ট্রাইব্যুনালের মতো আপিল বিভাগেও যুক্তি উপস্থাপনকালে আসামিপক্ষ দাবি করে, মুজাহিদ একাত্তরে ছাত্রসংঘের নেতা ছিলেন, কিন্তু আলবদর বাহিনীতে ছিলেন না। একাত্তরের অক্টোবর থেকে তিনি ছাত্রসংঘের সভাপতি হন। তদন্ত কর্মকর্তা আলবদর বাহিনীর নামের তালিকায় মুজাহিদের নাম পাননি।

২০১০ সালে মানবতাবিরোধী অপরাধের বহু প্রতীক্ষিত বিচার শুরুর পর এটি চতুর্থ মামলা; আপিল আদালতে যার চূড়ান্ত রায় হতে যাচ্ছে। এর আগে আবদুল কাদের মোল্লা, দেলওয়ার হোসাইন সাঈদী ও মোহাম্মদ কামারুজ্জামানের আপিলের নিষ্পত্তি হয়েছে। দণ্ড কার্যকর হয়েছে কাদের মোল্লা ও কামারুজ্জামানের। আপিল বিভাগের আরেক রায়ে দেলওয়ার হোসাইন সাঈদীর সাজা কমিয়ে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আর আপিলের শুনানির আগেই জামায়াতের সাবেক আমির গোলাম আযম ও বিএনপি নেতা আবদুল আলীমের মৃত্যু হওয়ায় তাদের আপিল নিষ্পত্তি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক

মুহম্মদ মিজানুর রহমান চৌধুরী

© All rights reserved by Crimereporter24.com
রি-ডিজাইনঃ Cumilla IT Institute
themesba-lates1749691102