বাইক চুরি করে দিনভর চালিয়ে তেল ফুরোলেই পরিত্যাগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।

কয়েকদিন ধরে দিল্লি পুলিশের মাথাব্যাথার কারণ হয়ে উঠেছে ক্লাস নষ্টম ও নবম শ্রেণীপড়ুয়া তিনজন ছাত্র। ভারতের রাজধানী দিল্লির বিভিন্ন এলাকায় পার্ক করে রাখে স্কুটার ও বাইক চুরি করছিল তারা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

সারাদিন সেই বাইক চালিয়ে তেল শেষে হয়ে গেলে তারা বাইকগুলি ফেলে রেখে যাচ্ছিল। অবশেষে সোমবার তাদের একজন ধরা পড়ায় রহস্যের উন্মোচন করেছে পুলিশ। 

পুলিশের কাছে অভিযোগ আসে, গত তিনদিনে দিল্লির বিভিন্ন এলাকা থেকে চুরি গিয়েছে ১১টি বাইক। সেগুলি ব্যবহার করার পর ফেলেও রেখে যায় চোরেরা। অভিযুক্তদের বয়স ১৪ থেকে ১৬ এর মধ্যে। তাদের মধ্যে একজন একদিন আবিষ্কার করে যে, বাবার পুরনো স্কুটারের চাবি দিয়ে রাস্তার ধারে পার্ক করা একটি স্কুটার খুলে যায়। সে দুই বন্ধুকে এই কথা বলার পর তারা সবাই মিলে এই কাজ শুরু করে। 

পুলিশের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘কয়েকটি চাবি দিয়ে তারা সব বাইক ও স্কুটার খুলতে পারবে বলে তাদের মধ্যে একটা আত্মবিশ্বাস তৈরি হয়েছিল। এর থেকেই চুরির নেশা ধরে তাদের। তারা বাইক ও স্কুটারের চাবি খুলে দিনভর লোনি, পাঞ্জাবি বাগের মতো বিভিন্ন এলাকায় তা চালিয়ে এক জায়গায় ফেলে দিয়ে যেত। এরপর বাড়ি ফিরত মেট্রোয় চেপে।’ 

বন্ধুদের সামনে নানা বাইক নিয়ে ছবিও তুলত তারা। পুলিশ জানিয়েছে তিন কিশোরকেই আটক করা হয়েছে। তাদের পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। সবারই পরিবার জানিয়েছে, তারা এ ব্যাপারে কিছু জানতো না। প্রজেক্টের কাজ রয়েছে বলে বাড়ি ফিরতে দেরি হত বলে বাড়িতে জানিয়েছিল কিশোররা। শুধুমাত্র মজা করার জন্য কিশোররা বাইকগুলি চুরি করত বলে জানতে পেরেছে পুলিশ। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। সূত্র: এই সময়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *