বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় র‌্যাবের এয়ার উইং পরিচালক মারা গেছেন ঝালকাঠিতে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামী আটক আধিপত্যকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ; নিহত১ টাইগারদের জরিমানা করলো আইসিসি বালিশচাপা দিয়ে স্ত্রীকে হত্যা, স্বামী আটক জাতির জনককে অবমাননার দায়ে প্রধান শিক্ষকের কারাদণ্ড নরসিংদীতে ছিনতাইকারী চক্রের ৫ সদস্য আটক কুমিল্লার সীমান্তে মাদক সেবনের দায়ে ৩ যুবককে জেল ও জরিমানা বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি মুসলিম হত্যাকারীদের ঠাঁই আমেরিকায় হবে না: জো বাইডেন বঙ্গমাতার সমাধিতে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা মাদক কারবারির পায়ুপথ দিয়ে বের হলো ৩৮ প্যাকেট ইয়াবা স্কুলছাত্রের ধর্ষণের শিকার কলেজছাত্রী! বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পদক পেলেন ৫ নারী লঞ্চভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার সিদ্ধান্ত বাতিল চেয়ে রিট রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ২সন্ত্রাসী গ্রুপের গোলাগুলি,নিহত ১ রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৪৭ সৌদি থেকে দেশে ফিরেছেন প্রায় ৫৭৯০৯ হাজি জাতীয় শোক দিবসে সরকারি কর্মসূচি
Uncategorized

জিপিওতে প্রতিমন্ত্রী তারানার ঝটিকা অভিযান

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ১৪ আগস্ট, ২০১৫
  • ২২ দেখা হয়েছে

87693_x2
ঢাকা জিপিও’র সেবার মান দেখতে গতকাল বিকালে ঝটিকা অভিযান চালান ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। বেলা সোয়া তিনটায় প্রতিমন্ত্রী জিপিও’র গেট দিয়ে প্রবেশের পর পরই প্রতিষ্ঠানটির চেহারা যেন পাল্টে যায়। জিপিওতে ২০ মিনিট অবস্থানকালে সেবা নিতে আসা বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে গিয়ে কোন সমস্যা আছে কিনা জানতে চান তিনি। ২১ নং কাউন্টারে জিপিও’র এক নারী কর্মীর কাছে প্রতিমন্ত্রী তার কাজকর্মের বিবরণ শোনেন। এরপর নতুন করে স্থাপিত তথ্যকেন্দ্রের সামনে গিয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছে কি কি তথ্য যোগান দেয়া হচ্ছে ওই সম্পর্কে শোনেন। এরপর সঞ্চয়পত্রের কাউন্টারের দিকে যান প্রতিমন্ত্রী। তবে তারানা হালিম আসার খবর পৌঁছায় ডাক অধিদপ্তরের ডিজি এবিএম হুমায়ুন ও জিপিও প্রধান ফরিদ আহমেদ এসে যোগ দেন। তারা প্রতিমন্ত্রীকে বিভিন্ন বিষয়ে ব্রিফ করেন। এক সেবাপ্রার্থীর অভিযোগের ভিত্তিতে জিপিও’র ভেতরে নষ্ট ফ্যান চালু ও নতুন করে ফ্যান লাগানোর জন্য তাৎক্ষণিক নির্দেশ দেন ডাক, তার ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী। ডিজি তার কথায় সায় দিয়ে তিন কর্ম দিবসের সময় চান। জিপিও থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় প্রতিমন্ত্রী উপস্থিত ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, গ্রাহকদের সন্তুষ্টি আনা আমাদের প্রথম কাজ। সদিচ্ছা থাকলে যে কোন কাজ দ্রুত করা সম্ভব। তথ্যকেন্দ্র চালু করার জন্য সাত দিন সময় দিয়েছিলাম। এখন দেখতে পাচ্ছি কম্পিউটারসহ তথ্যকেন্দ্রটি চালু হয়েছে। তিনি বলেন, ডাক বিভাগ ডিজিটালাইজেশনের দিকে যাচ্ছে। আমার ৯০ দিনের কর্মসূচিতে ডাক বিভাগের কিছু কর্মকাণ্ড রয়েছে। আশা করছি, ডাক বিভাগকে একটি পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারবো। জিপিও থেকে বেরিয়ে পুরানা পল্টন এলাকায় ফুটপাথে সিম বিক্রিকারী মো. আলাউদ্দিনকে বেশকিছু সিমসহ হাতেনাতে ধরেন ডাক, তার ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী। ফুটপাথে সিম বিক্রিকারীর কাছে ফরম ও জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি দেখতে চান তারানা হালিম। কিন্তু তিনি কোন কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হন। এ সময় তার কাছ থেকে রেজিস্ট্রেশনবিহীন দশটি সিম কার্ড জব্দ করা হয়।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক

মুহম্মদ মিজানুর রহমান চৌধুরী

© All rights reserved by Crimereporter24.com
রি-ডিজাইনঃ Cumilla IT Institute
themesba-lates1749691102