শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
যশোর বোর্ডের এসএসসি বাংলা ২য় পত্রের এমসিকিউ পরীক্ষা স্থগিত জুমা’র দিনে গোসল ও সুগন্ধির ব্যবহার সম্পর্কে যা বলেছেন বিশ্বনবি ইলিশ মাছের গড় আয়ু কত? নবজাতক শিশুর যত্নে, জন্মের পর করনীয় চুল এবং ত্বকের যত্নে থাকুক টক দই লন্ডনে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী বাবার লাশ উঠানে, রুমাল হাতে ছেলে পরীক্ষা কেন্দ্রে ঘুমধুম সীমান্তে আবারও গোলাগুলির শব্দ পা দিয়ে লিখে এসএসসি পরীক্ষা দিলেন মানিক সাবেক উপ প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত মোয়াজ্জেম হোসেনকে গার্ড অব অনার প্রদান গুয়েতেমালায় কনসার্টে পদদলিত হয়ে নিহত ৯, আহত ২০ কারাগারে বসে এসএসসি পরীক্ষা দিলেন ৩ আসামি পরীক্ষাকেন্দ্রে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ৫ শিক্ষককে অব্যাহতি করোনায় আক্রান্ত সিইসি হাবিবুল আউয়াল বেনাপোল সীমান্তে মাদকসহ আটক ১ সরকার সব দলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে বিশ্বাসী : সেতুমন্ত্রী রাঙ্গাকে অব্যাহতির কারণ জানালেন জাপা মহাসচিব নড়াইলে বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষায় দেয়া হলো দ্বিতীয় পত্রের প্রশ্ন! সারাদেশে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু রানির শেষকৃত্যে অংশ নিতে লন্ডনের পথে প্রধানমন্ত্রী
Uncategorized

নিম্ন আদালতের এক বিচারককে সতর্ক করলো হাইকোর্ট

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১২ আগস্ট, ২০১৫
  • ৩৫ দেখা হয়েছে

1439378761
চেক জালিয়াতির মামলায় (এনআই অ্যাক্ট) ভুল আদেশ দেয়ায় নিম্ন আদালতের এক বিচারককে সতর্ক করে বুধবার আদেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ বিষয়ে দায়ের করা এক রিভিশন আবেদনের শুনানি করে এ আদেশ দেয়। এ বিচারক হলেন চট্টগ্রাম মহানগর তৃতীয় আদালতের বিচারক জামিউল হায়দার। একইসঙ্গে এনআই অ্যাক্ট’র ওই মামলায় আসামিকে দেয়া ৩০ লাখ টাকা জরিমানা ও ৬ মাসের সাজা বাতিল করে দিয়েছে হাইকোর্ট।

৩০ লাখ টাকার চেক প্রতারণার অভিযোগে ঢাকার মতিঝিলের আলম এন্টারপ্রাইজের মালিক শাহ আলম চৌধুরীর বিরুদ্ধে ২০০৯ সালে চট্টগ্রাম আদালতে মামলা করেন মঈন উদ্দিন নামের এক ব্যবসায়ী। পরে শাহ আলম হাইকোর্টে মামলা বাতিল চেয়ে আবেদন করলে ২০১০ সালের ২৯ অক্টোবর হাইকোর্ট মামলার কার্যক্রমের ওপর স্থগিতাদেশ দেয় এবং রুলও জারি করে। এ স্থগিতাদেশ থাকা অবস্থায় চলতি বছরের ২৫ মে চট্টগ্রাম মহানগর তৃতীয় আদালতের বিচারক জামিউল হায়দার এনআই অ্যাক্ট মামলায় শাহ আলমকে ৩০ লাখ টাকা জরিমানা এবং ছয় মাসের কারাদন্ড দেয়।

নিম্ন আদালতের দেয়া আদেশের বিরুদ্ধে শাহ আলম বাদী হয়ে হাইকোর্টে রিভিশন আবেদন দায়ের করেন। শাহ আলমের পক্ষে রিভিশন আবেদনটি দায়ের করেন এডভোকেট আবেদ রাজা। আদালতে এ আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট আব্দুল মতিন খসরু।

এডভোকেট আবেদ রাজা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, নিম্ন আদালতে মামলার ওপর হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ থাকার পরও ওই আদালত রায় দেয়। এ কারণে হাইকোর্ট ওই বিচারককে সতর্ক করে এনআই অ্যাক্ট মামলায় রায় বাতিল করে আদেশ দেয়।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক

মুহম্মদ মিজানুর রহমান চৌধুরী

© All rights reserved by Crimereporter24.com
রি-ডিজাইনঃ Cumilla IT Institute
themesba-lates1749691102