বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
যশোর বোর্ডের এসএসসি বাংলা ২য় পত্রের এমসিকিউ পরীক্ষা স্থগিত জুমা’র দিনে গোসল ও সুগন্ধির ব্যবহার সম্পর্কে যা বলেছেন বিশ্বনবি ইলিশ মাছের গড় আয়ু কত? নবজাতক শিশুর যত্নে, জন্মের পর করনীয় চুল এবং ত্বকের যত্নে থাকুক টক দই লন্ডনে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী বাবার লাশ উঠানে, রুমাল হাতে ছেলে পরীক্ষা কেন্দ্রে ঘুমধুম সীমান্তে আবারও গোলাগুলির শব্দ পা দিয়ে লিখে এসএসসি পরীক্ষা দিলেন মানিক সাবেক উপ প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত মোয়াজ্জেম হোসেনকে গার্ড অব অনার প্রদান গুয়েতেমালায় কনসার্টে পদদলিত হয়ে নিহত ৯, আহত ২০ কারাগারে বসে এসএসসি পরীক্ষা দিলেন ৩ আসামি পরীক্ষাকেন্দ্রে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ৫ শিক্ষককে অব্যাহতি করোনায় আক্রান্ত সিইসি হাবিবুল আউয়াল বেনাপোল সীমান্তে মাদকসহ আটক ১ সরকার সব দলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে বিশ্বাসী : সেতুমন্ত্রী রাঙ্গাকে অব্যাহতির কারণ জানালেন জাপা মহাসচিব নড়াইলে বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষায় দেয়া হলো দ্বিতীয় পত্রের প্রশ্ন! সারাদেশে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু রানির শেষকৃত্যে অংশ নিতে লন্ডনের পথে প্রধানমন্ত্রী
Uncategorized

নুহাশ পল্লীতে হুমায়ুন আহমেদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালন

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৯ জুলাই, ২০১৫
  • ৩১ দেখা হয়েছে

1437307773

নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে প্রয়াত জনপ্রিয় কথা সাহিত্যক হুমায়ূন আহমেদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী রবিবার গাজীপুরের নুহাশ পল্লীতে পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে তার কবরে পুস্পস্তবক অর্পন ও দোয়া মাহফিল হয়েছে।

সকাল সোয়া ১১টার দিকে হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন তার দুই পুত্র সন্তান নিষাদ ও নিনিদকে নিয়ে নুহাশ পল্লীতে আসেন। পরে তিনি সন্তানদের নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের কবর জিয়ারত করে। এ সময় হুমায়ূন ভক্তরা পুস্পস্তবক অর্পন করেন এবং দোয়ায় শরিক হন।

এর আগে মেহের আফরোজ শাওন বলেন, আমি ও আমার দুই সন্তান কোনো নির্দিষ্ট দিনে নুহাশ পল্লীতে আসি না। প্রত্যেক মাসে অন্তত তিনবার আসি। সারাবছরই আমরা তাকে স্বারণ করি। আজকে (১৯ জুলাই) জন্য আলাদা করে বলার কিছু নাই। গত সাত দিন ধরে বা প্রতি বছর ১৯ জুলাই আমি একটা প্রশ্নের সম্মুখিন হই, আমাদের কর্মসূচি কি? মৃত্যুবার্ষিকী নিয়ে আমি কোনো কর্মসূচি করতে চাই না। আমার কাছে মৃত্যুবার্ষিকীটা একেবারেই পারিবারিক একটা সময়। হুমায়ূন আহমদের প্রিয় মানুষ তার বাবার মৃত্যুবার্ষিকীতে যা করতেন। তিনি ঘরোয়াভাবে কোরানখানি ও দোয়ামাহফিল করতেন, রোজার মাস থাকলে তার প্রিয় মানুষের নিয়ে, এতিম বাচ্চাদের নিয়ে ইফতার করতেন। এটা এই নূহাশ পল্লীর মাঠেই হতো। হুমায়ুন আহমেদ তার প্রিয় মানুষটি চলে যাওয়ার দিন যেভাবে পালন করতেন আমিও আমার প্রিয় মানুষটির জন্য সেভোবেই করি প্রতিবছর। এবার ১৯ জুলাই ঈদের পরদিন হয়েছে, ঈদের দিন হবার সম্ভবনাও ছিল। সে জন্য আমরা সবাই মিলে আলাপ আলোচনা করে ১৩ জুলাই কোরআনখানি, মিলাদ মাহফিল করেছি। নূহাশ পল্লীর আশপাশের এতিমখানার এতিম বাচ্চারা আমাদের সাথে ইফতার করেছে।

দুপুর পৌনে তিনটার দিকে হুমায়ুন আহমেদের ভাই ড. অধ্যাপক মো.জাফর ইকবাল, ছোটভাই কার্টুনিস্ট আহসান হাবীব এবং তিন বোন সুফিয়া হায়দার, মমতাজ শহীদ, রোকসানা আহমেদসহ তাদের সন্তানরা নুহাশপল্লীতে যান এবং কবর জিয়ারত করেন।

এছাড়া দুপুরে ‘হিমু পরিবহন’-এ করে রাজধানী শাহবাগ থেকে অর্ধশতাধিক ‘হিমু’ নুহাশ পল্লীতে পৌঁছেন। পরে তারা হুমায়ুন আহমেদের কবর জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পন করেন।

এদিকে সকাল থেকেই বৃষ্টি উপেক্ষা করে শত শত ভক্ত নুহাশপল্লীতে ভিড় জমাতে শুরু করেন। তাদের অনেকেই প্রিয় লেখকের কবরে ফুল দেন এবং নিশ্চুপ দাঁড়িয়ে থেকে তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক

মুহম্মদ মিজানুর রহমান চৌধুরী

© All rights reserved by Crimereporter24.com
রি-ডিজাইনঃ Cumilla IT Institute
themesba-lates1749691102