সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
যশোর বোর্ডের এসএসসি বাংলা ২য় পত্রের এমসিকিউ পরীক্ষা স্থগিত জুমা’র দিনে গোসল ও সুগন্ধির ব্যবহার সম্পর্কে যা বলেছেন বিশ্বনবি ইলিশ মাছের গড় আয়ু কত? নবজাতক শিশুর যত্নে, জন্মের পর করনীয় চুল এবং ত্বকের যত্নে থাকুক টক দই লন্ডনে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী বাবার লাশ উঠানে, রুমাল হাতে ছেলে পরীক্ষা কেন্দ্রে ঘুমধুম সীমান্তে আবারও গোলাগুলির শব্দ পা দিয়ে লিখে এসএসসি পরীক্ষা দিলেন মানিক সাবেক উপ প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত মোয়াজ্জেম হোসেনকে গার্ড অব অনার প্রদান গুয়েতেমালায় কনসার্টে পদদলিত হয়ে নিহত ৯, আহত ২০ কারাগারে বসে এসএসসি পরীক্ষা দিলেন ৩ আসামি পরীক্ষাকেন্দ্রে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ৫ শিক্ষককে অব্যাহতি করোনায় আক্রান্ত সিইসি হাবিবুল আউয়াল বেনাপোল সীমান্তে মাদকসহ আটক ১ সরকার সব দলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে বিশ্বাসী : সেতুমন্ত্রী রাঙ্গাকে অব্যাহতির কারণ জানালেন জাপা মহাসচিব নড়াইলে বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষায় দেয়া হলো দ্বিতীয় পত্রের প্রশ্ন! সারাদেশে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু রানির শেষকৃত্যে অংশ নিতে লন্ডনের পথে প্রধানমন্ত্রী
Uncategorized

বরিশালে ১০ পুলিশ সাসপেন্ড

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১ জুলাই, ২০১৫
  • ৩২ দেখা হয়েছে

1435687703

পুলিশ সদস্যদের পদোন্নতি দেয়ার কথা বলে কোটি টাকা ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের (বিএমপি) ১০ জন সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত আদেশ ঢাকা পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ সদর দপ্তরে এসে পৌঁছেছে।

যারা সাসপেন্ড হলেন: রিজার্ভ অফিসের এএসআই আনিসুজ্জামান, এএসআই মনির হোসেন, নায়েক মো. কবির হোসেন, ড্রাইভার শহীদুল ইসলাম, বাবলু জোমাদ্দার, রেশন স্টোরের মো. আব্বাস উদ্দিন, আরিফুর রহমান, ডিবির কনস্টেবল তাপস কুমার মন্ডল, ড্রাইভার দোলন বড়াল এবং বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানায় কর্মরত ও সদ্য বদলি হওয়া প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা দফতরের এসপিবিএন’র এএসআই হানিফ।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ২৩০ জন সদস্য পদোন্নতির জন্য পুলিশের বিশেষ পরীক্ষায় পাস করে বসে আছেন। শূন্য পদ না থাকায় তারা পদোন্নতি পাচ্ছেন না। পাস করে বসে থাকা কনস্টেবলদের নায়েক, হাবিলদার ও এএসআই পদে পদোন্নতির জন্য কনস্টেবল বাবলু, নায়েক কবির, এএসআই মনিরসহ তাদের সহযোগীরা ২৩০ জনের কাছ থেকে জনপ্রতি ৩০ হাজার থেকে ৫৫ হাজার টাকা করে প্রায় এক কোটি টাকা ঘুষ উত্তোলন করে। বিষয়টি পুলিশ সদর দফতরে জানাজানি হলে তোলপাড় শুরু হয়। সূত্রে আরও জানা যায়, এনিয়ে তদন্ত কমিটি গঠনের পর ঐ তিনজনের নামে খোলা যৌথ একাউন্টে ঘুষের ১৬ লাখ টাকা রাখার হিসেব মিললেও বাকি টাকার হদিস পাচ্ছেন না তদন্ত কর্মকর্তারা। গত ১৭ জুন বরিশাল পুলিশ হেডকোয়ার্টারে আসা ফ্যাক্স বার্তার মাধ্যমে পুলিশের সিকিউরিটি সেল ওই তিনজনকে ঢাকায় নিয়ে আলাদা আলাদাভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জিজ্ঞাসাবাদে তারা টাকা তোলার বিষয়টি স্বীকার করেন। তাদের দেয়া তথ্যমতে পরবর্তীতে রিজার্ভ অফিসের এএসআই আনিস ও কামালকে সিকিউরিটি সেল ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ঘটনার সাথে জড়িত সংশ্লিষ্ট দপ্তরের ঊর্ধ্বতন একাধিক কর্মকর্তার নাম বেরিয়ে আসে।

পুলিশ সদর দফতরের আদেশে তিন এএসআইসহ ১০ জনকে সাময়িক বরখাস্ত করার সত্যতা স্বীকার করে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার শৈবাল কান্তি চৌধুরী ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কম জানান, সিকিউরিটি সেলের পাশাপাশি নিজস্ব আদলে তদন্ত করার জন্য বিএমপি’র পক্ষ থেকে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। জানান, সিকিউরিটি সেলের পাশাপাশি নিজস্ব আদলে তদন্ত করার জন্য বিএমপি’র পক্ষ থেকে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক

মুহম্মদ মিজানুর রহমান চৌধুরী

© All rights reserved by Crimereporter24.com
রি-ডিজাইনঃ Cumilla IT Institute
themesba-lates1749691102