শিরোনাম

সিরাজুল আলম খান হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক ।

বাঙালির ‘জাতীয় রাষ্ট্র’ বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে ১৯৬২ সালে গোপন সংগঠন ‘নিউক্লিয়াস’-এর প্রতিষ্ঠাতা ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সিরাজুল আলম খান ১০ দিন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে বাসায় ফিরেছেন।গতকাল শনিবার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে দুপুর আড়াইটার দিকে অ্যাম্বুলেন্স যোগে তিনি কলাবাগানের বাসায় ফেরেন।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

সিরাজুল আলম খানের ঘনিষ্ঠজন মোশারেফ এইচ মন্টু জানান, অবস্থার উন্নতি হওয়ায় চিকিৎসকরা তাকে বাসায় যাওয়ার অনুমতি দিয়েছেন। ‘রাজনৈতিক তাত্ত্বিক ব্যক্তিত্ব’ হিসেবে পরিচিত সিরাজুল আলম খানের করোনা পরীক্ষার ফল গত ১৬ জানুয়ারি নেগেটিভ আসে। হাসপাতাল ছাড়ার আগে পুনরায় করোনা পরীক্ষা করা হয়, তাতেও ফল নেগেটিভ এসেছে।

১৩ জানুয়ারি সন্ধ্যায় অসুস্থ বোধ করলে রাত ৯টার দিকে প্রথমে সিরাজুল আলম খানকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর চিকিৎসকদের পরামর্শে রাত ১২টার দিকে তাকে স্থানান্তর করা হয় ঢাকা মেডিক্যালে। সেখানে তার ইন্টোস্টিনাল অবস্ট্রাক্সন রোগ শনাক্ত হয়। তার চিকিত্সায় ঢাকা মেডিক্যালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সমন্বয়ে বোর্ড গঠন করা হয়। বোর্ডের নেতৃত্বে ছিলেন সার্জারি বিভাগের প্রধান প্রফেসর এ বি এম জামাল।

সিরাজুল আলম খানের ২০০১ সালে বাইপাস সার্জারি এবং ২০১৭ সালে হিপ রিপ্লেসমেন্ট করা হয়। বর্তমানে তিনি হৃদরোগ, ফাইরোবায়োলজিয়া, হাইপোথাইরিজম ও শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। মেডিক্যাল বোর্ডের পরামর্শ অনুয়ায়ী বাসায় থেকে তিনি পরবর্তী চিকিৎসা নেবেন।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *