শিরোনাম

রাতে বাড়ি গিয়ে ঘুম, দুপুরে ৯ তলা থেকে লাফ তরুণীর

কুমিল্লা অফিস । মহানগর প্রতিনিধি

স্নাতক শেষে ঢাকার একটি বেসরকারি ব্যাংকে ইন্টার্নি করছিলেন। রাতে তিনি ঢাকা থেকে কুমিল্লায় বাড়িতে চলে আসেন। এরপরই মঙ্গলবার তার লাশ পাওয়া যায়। পরিবার দাবি করছে, তিনি ৯টা তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পরে আত্মহত্যা করেছেন।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

মঙ্গলবার দুপুরে কুমিল্লা নগরীর ঝাউতলা এলাকায় নগর ভবনের পেছনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম জান্নাতুল হাসিন (২৪)। তিনি ওই এলাকার ব্যবসায়ী ইদ্রিস মেহেদীর মেয়ে। বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজি (বিইউবিটি) থেকে স্নাতক শেষ করেছেন।

পুলিশ ও ছাত্রীর পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, জান্নাতুল হাসিন ঢাকায় তার বোনের বাসায় থাকতেন। সোমবার রাতে কাউকে না জানিয়ে কুমিল্লার বাড়িতে চলে আসার পর তার মানসিক অবস্থা খারাপ দেখে বাবা-মা ও পরিবারের লোকজন কিছুই জানতে চাননি।

ছাত্রীর বাবা ইদ্রিস মেহেদী বলেন, সোমবার দিবাগত রাতে বাড়ি আসার পর মেয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সে বাসায় ছিল। দুপুর দেড়টার দিকে দোকান থেকে শ্যাম্পু আনার কথা বলে বাইরে যায়। পরে জানতে পারি নগর ভবনের পেছনের একটি ৯টা তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পরে সে আত্মহত্যা করেছে। তবে আত্মহত্যার কারণ তিনি জানাতে পারেননি।

স্থানীয় ১০ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও ঘটনাস্থল সংলগ্ন বাড়ির বাসিন্দা মনজুর কাদের মনি জানান, আমরা অফিসের ভেতরে বসে কাজ করছিলাম। অফিসের সামনে হঠাৎ শব্দ শুনে বের হয়ে দেখি একটি মেয়ে মাটিতে পড়ে আছে। কয়েকজন দৌঁড়ে এসে মাথায় পানি দেওয়ার চেষ্টা করে। এরই মধ্যে তার মৃত্যু হয়।

সন্ধ্যায় কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আনোয়ারুল হক বলেন, যেহেতু মেয়েটি বহুতল ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে মারা গেছে, তাই আমরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি সে আত্মহত্যা করেছে। ময়নাতদন্ত শেষে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *