শিরোনাম

এক ভবনে তিন ধর্ম!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।

জার্মানীর রাজধানী বার্লিনে ইহুদি, খ্রিস্টান ও ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের জন্য হতে যাচ্ছে একক উপাসনালয়। এর নাম দেয়া হয়েছে ‘হাউজ অব ওয়ান’৷ সুদীর্ঘ প্রস্তুতির পর অবশেষে ২০২১ সালেই এর নির্মানকাজ শেষ হওয়ার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে বলে জানিয়েছে ডয়েচে ভেলে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

জানা যায়, প্রায় এক দশক ধরে এই তিন একেশ্বরবাদী ধর্মের প্রতিনিধিরা এই একক উপাসনালয় নির্মাণ নিয়ে আলোচনা করছেন৷ এখন অবশেষে সে আলোচনা দেখতে যাচ্ছে আলোর মুখ৷ এখন থেকে দুই মাসের মধ্যে অর্থাৎ ২০২১ সালের জানুয়ারিতেই বার্লিনের পুরনো শহরের ঠিক মাঝখানে এই ভবনটি নির্মাণের জন্য মাটি খোঁড়ার কাজ শুরু হবে বলে এমনটিই জানিয়েছেন হাউজ অব ওয়ান ফাউন্ডেশনের প্রশাসনিক পরিচালক রোলান্ড স্টোলটে৷ এই প্রকল্প গত কয়েক বছরে বেশ কয়েকটি কারণে পিছিয়েছে৷ সবশেষ করোনা মহামারির কারণে আবারও পেছানো হয়েছে নির্মাণ কাজ৷

ডয়েচে ভেলে বলছে, ভবনটি নির্মাণে ২০ সদস্যের ট্রাস্টি বোর্ড গঠন করা হয়েছে। এর প্রধান হিসেবে রয়েছেন বার্লিনের মেয়র মিকায়েল ম্যুলার৷ ইহুদি, খ্রিস্টান ও ইসলাম এই তিন ধর্মের প্রতিনিধি ছাড়াও এই বোর্ডে হামবোল্ডট ফোরামের মহাপরিচালক, জার্মান থিয়েটারের পরিচালক, ইহুদি জাদুঘরের পরিচালক, প্রুশিয়ান কালচারাল হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্টও রয়েছেন৷ সংস্কৃতি ও ধর্মের মেলবন্ধন হিসেবে এই ভবনটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিবে বলে মনে করছেন তারা৷

ভবন নির্মাণের জন্য যে স্থানটিকে বাছাই করা হয়েছে সেখানে ৭০০ বছর ধরে পেট্রিকির্শে নামের একটি গির্জা ছিল৷ সেটি ধ্বংস হওয়ার পর জায়গাটি এখন পর্যন্ত খালি পড়ে রয়েছে৷ এবার সেই গির্জার স্থানেই তিন ধর্মের এক উপাসনালয় নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে৷ এতে একটি কেন্দ্রীয় বৈঠকখানার চারপাশ জুড়ে থাকবে মসজিদ, গির্জা ও সিনাগগ৷ ৪০ মিটার উঁচু এ ভবনটি নির্মাণে ৪৩ দশমিক পাঁচ মিলিয়ন ইউরো বা প্রায় ৪৩২ কোটি টাকা খরচ হবে৷খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *