শিরোনাম

কুমিল্লায় চাঁদাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার ৩

কুমিল্লা অফিস । মহানগর প্রতিনিধি

কুমিল্লা নগরীতে পুলিশ এবং আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এসময় তাদের নিকট থেকে নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

র‌্যাব-১১, সিপিসি-২ কুমিল্লা কার্যালয়ের একটি দল নগরীর রাজগঞ্জ এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করে। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের বিরুদ্ধে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেন- কুমিল্লার বাঙ্গরা বাজার থানার পান্ডুঘর গ্রামের আবুল কালামের ছেলে মো. কাউছার ওরফে আনিছ (৩৪), চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থানার দক্ষিণ ড্যামশা গ্রামের মৃত হাজী ভোমন আলীর ছেলে এবং কুমিল্লা নগরীর ছোটরা এলাকার বাসিন্দা আহমদ হোসেন ভুট্টু (৫৯) ও ছোটরা এলাকার দীপক সরকারের ছেলে তুষার সরকার (২৩)।

বৃহস্পতিবার বিকালে র‌্যাবের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, র‌্যাবের একটি দল বুধবার সন্ধ্যায় কুমিল্লা নগরীর রাজগঞ্জ এলাকার দুটি স্থানে পৃথক অভিযান পরিচালনা করে। এসময় রাজগঞ্জ এলাকার বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে চাঁদাবাজির টাকা উত্তোলনের সময় কাউছার ওরফে আনিছ, আহমদ হোসেন ভুট্টু ও তুষার সরকারকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের নিকট থেকে ৫টি মোবাইল ফোন, চাঁদাবাজির মাধ্যমে বিভিন্ন লোকজনের নিকট থেকে সংগৃহীত মোট ১২ হাজার ৮০০ টাকা এবং আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ভুয়া ভিজিটিং কার্ড উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব-১১, সিপিসি-২ কুমিল্লা ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিব জানান, জিজ্ঞাসাবাদে কাউছার ওরফে আনিছ নিজেকে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার পরিচয় দিয়ে ভিজিটিং কার্ড প্রদর্শন করে এবং আহমদ হোসেন ভুট্টু নিজেকে বাংলাদেশ পুলিশের কর্মকর্তা আবার কখনো সিআইডি পরিচয় দিয়ে সঙ্গীদের নিয়ে নগরীর রাজগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে চাঁদা উত্তোলন করে আসছিল বলে জানিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়েরের পর আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *