শিরোনাম

সিদ্ধিরগঞ্জে ২ বোনকে ধর্ষণের অভিযোগে একজন গ্রেফতার

নারায়ণগঞ্জ অফিস । সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি

সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি এলাকার কান্দাপাড়ায় আপন ২ কিশোরী বোনকে ধর্ষণের অভিযোগে আবু বক্কর (৪৮) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১২টার দিকে একটি আবাসিক ভবনের খালি ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙ্গে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় আজ সকালে একটি মামলা হয়েছে। আবু বক্কর ঐ ভবনে কেয়ারটেকার হিসেবে কাজ করে। ভবনের মালিক ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর পুলিশ আসার ঘটনা টের পেয়ে তাকে নিজ বাড়ির একটি ফ্ল্যাটে লুকিয়ে রেখেছিল। ঘটনার পর বাড়ির মালিক জাহাঙ্গীর পলাতক রয়েছে বলে জানা গেছে।

কিশোরীদের বাবা জানান, তার এক মেয়ের বয়স ১২, অপরটির বয়স ১৪/১৫। মেয়ে ২জনকে তিনি স্থানীয় হোসিয়ারিতে কাজে লাগিয়েছিলেন। নিয়মিত কাজে না যাওয়ায় তিনি ছোট মেয়েকে মারধর করার কারণে তার ২টি মেয়েই ভয়ে গত ৫অক্টোবর আর কাজ থেকে সন্ধ্যায় বাসায় না ফিরে এলাকায় ঘুরছিল। পরে তার মেয়েরা তাকে জানিয়েছে, উক্ত জাহাঙ্গীরের বাড়ির সামনে ঘুরাফেরা করার সময় বাড়ির কেয়ারটেকার আবু বক্কর মেয়ে ২টিকে ঘুরাফেরার কারণ জিজ্ঞেস করে এবং ফুসলিয়ে তার সাথে ঐ বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। অনেক রাতে বাড়িতে ফিরে এলে মেয়েরা বিষয়টি খুলে বলে।

রাতেই (৫ অক্টোবর) সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় গেলে সেখানকার পুলিশ সদস্যরা থানায় বড় অফিসার নেই বলে পরের দিন তাকে আসতে বলেন। পরবর্তীতে বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় রহিম মেম্বারের ছেলে মনির বিষয়টি নিয়ে বাড়িওয়ালা জাহাঙ্গীরকে অবগত করে মীমাংসার জন্য চাপ দেয়। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে তালবাহানার এক পর্যায়ে সোমবার এলাকার যুবকরা বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশে খবর দেয় এবং আবু বক্করকে ধরতে যায়। অবস্থা বেগতিক দেখে বাড়িওয়ালা জাহাঙ্গীর তার কেয়ারটেকার আবু বক্করকে ৬ তলার একটি খালি ফ্ল্যাটে তাকে লুকিয়ে রাখে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর পুলিশ তার সন্ধান পেয়ে ঐ ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে আবু বক্করকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। এসময় সুযোগ বুঝে বাড়িওয়ালা জাহাঙ্গীরও চম্পট দেয়।

এব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) ইশতিয়াক রাসেল জানান আজ মামলা হয়েছে। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *