শিরোনাম

কুমিল্লায় সম্ভ্রম রক্ষায় চলন্ত সিএনজি থেকে লাফিয়ে পড়ল ছাত্রী

কুমিল্লা অফিস । ব্রা‏হ্মণপাড়া প্রতিনিধি

কুমিল্লায় চলন্ত সিএনজিচালিত অটোরিকশা থেকে লাফিয়ে পড়ে সপ্তম শ্রেণির এক মাদরাসা ছাত্রী সম্ভ্রম রক্ষা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার পদুয়া খামাচাড়া এলাকায় রবিবার দুপুরের দিকে এ ঘটনা ঘটে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

এ ঘটনায় বিল্লাল হোসেন (৩৫) নামে এক সিএনজি চালককে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়ে বিকালে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জাফর সাদিক চৌধুরীর নেতৃত্বে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত বিল্লাল হোসেন ব্রা‏হ্মণপাড়া উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের বাড়ানী গ্রামের মুকবল হোসেন মোহন মিয়ার ছেলে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বিল্লাল হোসেন সিএনজি চালিত একটি অটোরিকশার মালিক ও চালক। রবিবার অটোরিকশাটি অন্যচালকের কাছে ভাড়া দিয়ে নিজে যাত্রীর আসনে বসে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা সদর থেকে থেকে চান্দলা গ্রামের দিকে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে উপজেলার ছোটধুশিয়া এলাকা থেকে স্থানীয় একটি মাদরাসার সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে মাদরাসায় প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার জন্য ওই সিএনজিতে উঠে পেছনের খালি সিটে বসে। পাশের সিটে বসা ছিল বিল্লাল হোসেন। পথিমধ্যে পদুয়া খামাচাড়া এলাকায় পৌঁছলে একপর্যায়ে বিল্লাল হোসেন মাদরাসা ছাত্রীর শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করলে সে সম্ভ্রম রক্ষা করতে চলন্ত সিএনজি থেকে লাফ দিয়ে মাটিতে পড়ে যায়। এ সময় স্থানীয় লোকজন সিএনজি চালিত অটোরিকশাসহ বিল্লাল হোসেনকে আটক করে। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি ব্রা‏হ্মণপাড়া থানা পুলিশকে অবহিত করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাফর সাদিক চৌধুরী বলেন, যাত্রীবেশে চালক বিল্লাল হোসেন সিএনজিতে ওই ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী করার কথা ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে স্বীকার করেছে। তাই তাকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। ব্রা‏হ্মণপাড়া থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ বলেন, দণ্ডপ্রাপ্ত বিল্লাল হোসেনকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *