শিরোনাম

বধূ সেজে ইতালিয়ান পুলিশ কর্মকর্তার ঘরে বাংলাদেশি মেয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক ।

দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্কের পর অবশেষে ইতালীয় এক পুলিশ কর্মকর্তার সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন বাংলাদেশি মেয়ে সুমাইয়ারা। সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দেশটির কাম্পানিয়া বিভাগের অপরূপ বন্দরশহর সালেরনো’র মায়িও পৌর এলাকায় বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয় দোমেনিকো-সুমাইয়ারা দম্পতি। এতে দেশটির বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রশংসিত হচ্ছে এ নবদম্পতি।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

স্থানীয় বাঙালি কমিউনিটির মাধ্যমে জানা যায়, বাংলাদেশি মেয়ে সুমাইয়ারা দেশটির প্রাচীন রাজধানী পিয়েমন্তের তোরিনো শহরের একটি ইনস্টিটিউটে পড়াশোনা করতেন। অপরদিকে বর দোমেনিকো তাম্বুররিনো একই শহরে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ প্যারামিলিটারি পুলিশ ফোর্স ‘ক্যারাবিয়ান পুলিশ’র মার্শাল হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সেখানে প্রথম দেখা হয় তাদের। এরপর ভালোলাগা থেকে ভালোবাসায় পরিণত হলে শেষ পর্যন্ত সোমবার এ দম্পতির বিবাহের মাধ্যমে এ সম্পর্কের সফলতা হয়।

বধূ সেজে ইতালিয়ান পুলিশ কর্মকর্তার ঘরে বাংলাদেশি মেয়ে

তবে এ বিবাহের মূল আকর্ষণ ছিল বর ও কনের পোশাক। এ সময় বর দোমেনিকো তার বিখ্যাত বাহিনীর ইউনিফর্ম পরলেও কনের সাঁজ অনুষ্ঠানে সম্পূর্ণ ভিন্নতা এনে দেয় অনুষ্ঠানে। এসময় কনেকে দেখা যায় লাল শাড়ি পরে সম্পূর্ণ বাঙালি বধূর মত সেজে বর দোমেনিকোর হাত ধরে বিবাহের আসরে অংশ নিতে।

এদিকে, দেশটির সাথে বাংলাদেশের ফ্লাইট চলাচলের নিষেধাজ্ঞা থাকায় কনের পক্ষ থেকে কেউ বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে পারেনি। এতে কনে সুমাইয়ারার বান্ধবীরাই সাক্ষী হিসেবে বিবাহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন। তবে খুব শীঘ্রই এ দম্পতি বাংলাদেশে পাড়ি জমাবেন বলে জানায় স্থানীয় বাঙালি কমিউনিটির লোকজন।

এছাড়া কমিউনিটির লোকজন বলছে, দেশটিতে এর আগেও বাংলাদেশি ও ইতালিয়ানদের মধ্যে বিবাহবন্ধন হলেও এই প্রথমবারের মত কোন সরকারি কর্মকর্তার সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে বাংলাদেশি কোন মেয়ে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *