শিরোনাম

এএইচএফ কাপ হকি ঢাকায়

ltpel2gc-290x181
আসন্ন অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহেই ঢাকার মাঠে নীল টার্ফে গড়াচ্ছে এএইচএফ কাপ বয়েজ অনূর্ধ্ব-১৮ হকি প্রতিযোগিতা। ৫-১১ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য এই টুর্নামেন্টে স্বাগতিক বাংলাদেশসহ অংশ নিচ্ছে কম্বোডিয়া, চাইনিজ তাইপে, শ্রীলঙ্কা ও উজবেকিস্তান।

৫ অক্টোবর উদ্বোধনী দিনে প্রথম খেলায় মোকাবেলা করবে শ্রীলঙ্কা ও কম্বোডিয়া। দ্বিতীয় ম্যাচে চায়নাতাইপের প্রতিপক্ষ উজবেকিস্তান। ৬ অক্টোবর স্বাগতিকরা নিজেদের প্রথম ম্যাচে মোকাবেলা করবে কম্বোডিয়াকে। ৭ অক্টোবর বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ চায়না তাইপে, ৯ অক্টোবর শ্রীলঙ্কা এবং ১০ অক্টোবর উজবেকিস্তান। তবে হকি ফেডারেশন চেষ্টা করছে উদ্বোধনী দিনে বাংলাদেশের ম্যাচ থাকুক। প্রথম পর্বে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে থাকা দুটি দল চ্যাম্পিয়নের জন্য লড়বে ১১ অক্টোবর। একই দিনে তালিকায় তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে থাকা দল দুটি লড়বে স্থান নির্ধারনির জন্য।

টুর্নামেন্ট নিয়ে হকি ফেডারেশন সেক্রেটারি খাজা রহমতউল্লাহ বলেন, ‘এএইচএফ কাপ উপলক্ষ্যে প্রশিক্ষনের জন্য ইতোমধ্যে আমরা বিকেএসপিতে বলেছি। সুবিধা হলো ওখানে তারা একসাথে অনুশীলন করে। বোঝাপড়া চমৎকার। আমরা চাচ্ছি পুরো সেটটি যে বিকেএসপির হয়। তারপরও পারফরমেন্সের বিবেচনায় অন্য জায়গা থেকে তিন চারজন বিকেএসপি দলের সাথে যোগ হতে পারে। এই দলটি নিয়ে আমি বেশ আশাবাদি। কয়েকটি স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের সাথে কথা হয়েছে। তাদের চিঠিও দিয়েছি। হাতে আরো কয়েকদিন সময় আছে। আশা করছি স্পন্সর পেয়ে যাবো।’

বিকেএসপি প্রধান কোচ কাওসার আলি বলেন, ‘হকি ফেডারেশন থেকে আমাদের জানানো হয়েছে দল গঠনের জন্য। আমাদের কাজই-তো বয়স ভিত্তিক দল নিয়ে কাজ করা। সে হিসেবে যদি বলি, তাহলে গত একমাস ধরেই ২২ জনকে নিয়ে অনুশীলন শুরু করেছি। দলে কয়েকজন প্রতিভাবান খেলোয়াড় আছে। যাদের ভবিষ্যত খুব উজ্জ্বল। যদি বাংলাদেশে হকি খেলা টিকে থাকে এবং সকলের মাঝে একটা সম্প্রীতির বন্ধন তৈরি হয়। তাছাড়া অন্যান্য প্রতিভাবান খেলোয়াড় থাকলে তাদেরও দলে অন্তর্ভূক্ত করা হবে। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছি।’