image_129512_0_84453
প্রধানমন্ত্রীর ছবি দিয়ে ব্যঙ্গাত্মক ভিডিও তৈরি এবং তা বাজারজাত করার দায়ে এক যুবককে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুমন চৌধুরী ওই দন্ড দেন। সাজাপ্রাপ্ত ওই যুবকের নাম মহিব উল্লাহ (২৬)।

মহিব উল্লাহ কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মাইজখার ইউনিয়নের আওরাল গ্রামের বাসিন্দা। চান্দিনার বদরপুর বাজারে তাঁর একটি মোবাইল ও কম্পিউটারের দোকান আছে।

চান্দিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রসুল আহমেদ নিজামী জানান, মহিব উল্লাহ বদরপুর বাজারে মা টেলিকম নামে একটি মোবাইল ফোন ও কম্পিউটারের দোকান পরিচালনা করছিলেন। তিনি ব্যবসার আড়ালে রাষ্ট্রের বিখ্যাত ব্যক্তি, রাজনৈতিক নেতা ও গুণীজনদের স্থির ছবি বিকৃতি করতেন। পরে এগুলো মেমোরি কার্ডে বাজারজাত করতেন।

ওসি আরো জানান, ওই দোকানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি দিয়ে ব্যঙ্গাত্মক ছবি তৈরি করা হয়। পরে একটি অডিও গানের সঙ্গে যুক্ত করে ভিডিও ফাইল নির্মাণ করে বাজারজাত করা হচ্ছিল। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় দোকানে ওই ভিডিও গানটি কম্পিউটারে চালু করে লোকজনদের দেখান মহিব উল্লাহ।

পরে লোকজন পুলিশে খবর দিলে চান্দিনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মহিউদ্দিন আহমেদ, সহকারী পরিদর্শক (এসআই) মো. নুরুল ইসলাম ও সহকারি উপপরিদর্শক (এএসআই) মনির হোসেন অভিযান চালিয়ে দোকান থেকে মহিবকে আটক করে। এ সময় তার ব্যবহৃত কম্পিউটারটি জব্দ করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

বাহাদুর বেপারীস্বদেশের খবর
প্রধানমন্ত্রীর ছবি দিয়ে ব্যঙ্গাত্মক ভিডিও তৈরি এবং তা বাজারজাত করার দায়ে এক যুবককে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুমন চৌধুরী ওই দন্ড দেন।...