6666
ইকুয়েডরকে ২-০ গোলে হারিয়ে দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলে শ্রেষ্ঠত্বের টুর্ণামেন্ট কোপা আমেরিকায় দুর্দান্ত সূচনা করেছে স্বাগতিক চিলি। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার ভোরে অনুষ্ঠিত দুই দলের ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠেছে এই টুর্ণামেন্টের। দীর্ঘ ৯৯ বছর ধরে শিরোপা জয়ের জন্য মরিয়া চিলিয়ান দলের হয়ে দ্বিতীয়ার্ধে গোল দু’টি করেছেন যথাক্রমে জুভেন্টাস তারকা আর্তুরু ভিদাল ও নেপোলির এডুয়ার্ডো ভার্গেস। ম্যাচের ৬৭তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে ভিদাল গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে বার্সেলোনার কাছে পরাজয়ের গ্লানি থেকে মুক্তি লাভ করেন। ম্যাচ শেষ হবার মাত্র ৬ মিনিট আগে ভার্গেস স্বাগতিক দলের হয়ে ফের গোলের দেখা পেলে ২-০ ব্যাবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে সক্ষম হয় চিলিয়ানরা। কানায় কানায় পূর্ণ স্বাগতিক দর্শকদের দারুণ সমর্থন পাওয়া দলটি শুরুতেই কয়েকটি অসাধারণ আক্রমন পরিচালনা করে ছন্নছাড়া পারফর্মেন্স উপহার দেয়া ইকুয়েডরের শিবিরে। এসময় চিলিয়ানদের আক্রমণের চাপে ইকুয়েডরের রক্ষণব্যুহ ভেঙ্গে তছনছ হয়ে গেলেও প্রথমার্ধে গোল আদায় করতে ব্যর্থ হওয়া চিলি দর্শকদের দারুণভাবে হতাশ করেছে। ম্যাচের শুরুতে চিলিয়ানদের আক্রমণে নেতৃত্ব দিয়েছেন আর্সেনাল স্ট্রাইকার আলেঙ্সি সানচেজ। শুরুতে প্রথম গোলের সুযোগটি সৃষ্টি করেছিলেন তিনিই। ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটে জর্জ ভালদিবার কাছ থেকে পাওয়া বলে সানচেজের নেয়া নীচু শটটি গোলপোস্টের সঙ্গে কিছুটা দূরত্ব রেখে মাঠের বাইরে চলে যায়। যদিও প্রতিপক্ষ শিবিরের গোলরক্ষক আলেঙ্ান্ডার ডোমিংগুয়েজ কিছুটা এগিয়ে আসায় গোল করার দারুণ সুযোগ ছিল সানচেজের। কয়েক মুহূর্ত পর ফের সানচেজকে পরীক্ষা দিতে বাধ্য হয়েছেন ডেমিংগুয়েজ। এবার সানচেজের নেয়া উড়ন্ত শটটি দক্ষতার সঙ্গে প্রতিহত করেন দীর্ঘদেহী ওই গোলরক্ষক। স্বাগতিক দলের সূচনা আক্রমণ সামাল দেয়ার পর প্রতিআক্রমণে মনোযোগ দেয় ইকুয়েডর। এসময় তাদের কয়েকটি আক্রমণ স্বাগতিক শিবিরে রিতিমত আতংক ছড়িয়ে দেয়। তবে বিচ্ছিন্নভাবে রচিত অই আক্রমণ থেকে শেষ পর্যন্ত গোল আদায় করতে পারেনি সফরকারীরা। বরং ৩৯তম মিনিটে আবারো গোল খাওয়া থেকে রক্ষা পেয়েছে ইকুয়েডর। এসময় গোলপোস্টের খুবই কাছ থেকে সানচেজের নেয়া শটটি অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রস্ট হয়। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে স্বাগতিকদের বিদায় ঘন্টা প্রায় বাজিয়ে দিয়েছিল ইকুয়েডর। এসময় ওয়েস্টহ্যামের স্ট্রাইকার ইনার ভ্যালেন্সিয়া চিলির রক্ষনব্যুহ ভেঙ্গে ঢুকে পড়েছিলেন বিপজ্জনক অবস্থানে। তার বাড়িয়ে দেয় বল অল্পের জন্য দখলে নিতে ব্যর্থ হন গোলপোস্টে আড়াআড়িভাবে অবস্থান নেয়া সোয়ানসি তারকা জেফারসন মন্টেরো। এরপর কাংখিত সফলতা পেতে সক্ষম হয় স্বাগতিক চিলি। এসময় বল দেয়া নেয়া করে প্রতিপক্ষের গোলবক্সে ঢুকে পড়া ভিদালকে বিধিবহির্ভুতভাবে ফেলে দেন মিলার বোলানোস। সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিতে দেরী করেননি দায়িত্বরত আর্জেন্টাইন রেফারি নেস্টর পিটানা। পেনাল্টির নির্দেশ দেন তিনি। পেনাল্টি থেকে ৬৭তম মিনিটে সাবলিল ভাবেই গোল আদায় করে নেন ভিদাল (১-০)। তবে এর পরপরই গোলটি পরিশোধ করার সুযোগ পেয়ে গিয়েছিল সফরকারীরা। ভ্যালেন্সিয়ার দর্শনীয় হেডের বলটি অল্পের জন্য ক্রসবার অতিক্রম করে মাঠের বাইরে চলে যায়। এরপর খেলা শেষ হবার ৬ মিনিট আগে সানচেজের বাড়িয়ে দেয়া বল প্রতিপক্ষের জালে জড়িয়ে দিয়ে স্বাগতিক দলকে নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেন ভার্গেস (২-০)। ম্যাচের শেষ মিনিটে পরাজয়ের গ্লরানির সঙ্গে একটি লাল কার্ডও সঙ্গে করে নিয়ে যায় অতিথিরা। দ্বিতীয়বারের মত হলুদ কার্ড দেখে লাল কার্ড নিয়ে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন ইকুয়েডরের আন্তর্জাতিক তারকা মাটিয়াস ফার্নান্দেজ।

শুভ সমরাটখেলাধুলা
ইকুয়েডরকে ২-০ গোলে হারিয়ে দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলে শ্রেষ্ঠত্বের টুর্ণামেন্ট কোপা আমেরিকায় দুর্দান্ত সূচনা করেছে স্বাগতিক চিলি। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার ভোরে অনুষ্ঠিত দুই দলের ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠেছে এই টুর্ণামেন্টের। দীর্ঘ ৯৯ বছর ধরে শিরোপা জয়ের জন্য মরিয়া চিলিয়ান দলের হয়ে দ্বিতীয়ার্ধে গোল দু'টি করেছেন যথাক্রমে জুভেন্টাস তারকা আর্তুরু ভিদাল...