8
আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।
জাতিসংঘের সংস্থাগুলো বলছে, মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে সহিংসতার কারণে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থীদের সংখ্যা গত কয়েকদিনে লক্ষণীয় রকমে কমে গেছে। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আই ও এমের একজন মুখপাত্র বলেছেন, মিয়ানমার ছেড়ে রোহিঙ্গাদের পালিয়ে আসা যে একেবারেই বন্ধ হয়ে গেছে এমন কথা বলার সময় এখনো আসে নি।

তিনি বলেন, তবে ওই মুখপাত্র বলেছেন, সীমান্ত এলাকার কাছে মাঠ পর্যায়ে তাদের যে দলগুলো কাজ করছে, তারা পালিয়ে আসা লোকের সংখ্যা নিশ্চিতভাবেই কমেছে বলে খবর দিচ্ছে। রবিবার প্রকাশ করা ‘ইন্টার সেক্টর কো-অর্ডিনেশন গ্রুপ’-এর এক বিজ্ঞপ্তিতেও বলা হয় গত দু দিনে সীমান্ত পার হয়ে আসা লোকের সংখ্যা কমেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এতে বলা হয়, অল্প সংখ্যক লোক এই সময়ে কক্সবাজারে এসেছে বলে লক্ষ্য করা গেছে।

অন্যদিকে মিয়ানমারে কর্মরত একটি ত্রাণ সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটির প্রধান এবং সাবেক ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডেভিড মিলিব্যান্ড বলেছেন, যে সব দেশ মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে সমর্থন দেয় তাদের উচিত রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বন্ধের জন্য তাদের প্রভাবকে কাজে লাগানো। তিনি বলেন, এ সমর্থনকে মানবাধিকার লংঘনের কাজে ব্যবহার করা চলে না। মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গ্রামগুলো যেভাবে ধ্বংস করা হয়েছে তাতে সেখানে ‘জাতিগত নিধন’ চলছে বলে অভিযোগও উঠেছে।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। সূত্র : বিবিসি।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/09/833.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/09/833-300x300.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনআন্তর্জাতিক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক । জাতিসংঘের সংস্থাগুলো বলছে, মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে সহিংসতার কারণে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থীদের সংখ্যা গত কয়েকদিনে লক্ষণীয় রকমে কমে গেছে। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আই ও এমের একজন মুখপাত্র বলেছেন, মিয়ানমার ছেড়ে রোহিঙ্গাদের পালিয়ে আসা যে একেবারেই বন্ধ হয়ে...