2
নয়াদিল্লী সংবাদদাতা ।
মুসলমানদের বিয়ে ভঙ্গের রীতি ‘মৌখিক তালাক বা তিন তালাক’কে অসাংবিধানিক উল্লেখ করে একে অবৈধ ঘোষণা করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
মঙ্গলবার দেশটির প্রধান বিচারপতি জেএস খেহরের নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ এ রায় দেন। রায়ে তিন তালাককে অবৈধ ঘোষণার পাশাপাশি ভারতের পার্লামেন্টে এ সংক্রান্ত আইন পাস করতে বলা হয়েছে।

এছাড়া নতুন আইন পাস না হওয়া পর্যন্ত ছয়মাসের জন্য ভারতে তিন তালাক প্রথা নিষিদ্ধ করেছেন সুপ্রিমকোর্ট। এর আগে, তিন তালাকের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা দায়ের করেছিলেন কয়েকজন ভারতীয় মুসলিম নারী। মঙ্গলবার সেই সব মামলার ওপর সর্বশেষ শুনানি হয়।
জানা গেছে, বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী বিচারপতিদের নিয়ে গঠিত হয় এই বেঞ্চের অপর সদস্যরা ছিলেন ইউ ইউ ললিত, আর এফ নরিম্যান, আবদুল নাজির ও কুরিয়ান জোসেফ। ৫ বিচারপতির মধ্যে ৩ জনই তিন তালাক নিষিদ্ধ করার পক্ষে রায় দিয়েছেন। বাকি ২ বিচারপতি বলেন, এ নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভাকে আইন প্রণয়নের দায়িত্ব দেওয়া হোক। কিন্তু সংখ্যাগরিষ্ঠ মত তালাক প্রথার বিরুদ্ধে যাওয়ায় প্রাচীন এই শরিয়তি প্রথা আজ থেকে নিষিদ্ধ হয়ে গেল ভারতে।
একাধিক মুসলিম দেশের উদাহরণ তুলে ধরে শীর্ষ আদালত প্রশ্ন করেছে, স্বাধীন ভারত কেনো এই প্রথা থেকে মুক্ত হতে পারবে না। এরপরই তালাক প্রথা খারিজ করে আদালত বলেছে, ৬ মাসের মধ্যে মুসলিম বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে কেন্দ্রকে নতুন আইন প্রণয়ন করতে হবে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, মুসলিম ব্যক্তিগত আইনের ইতিহাসে আজকের দিনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত থাকবে। এনডিটিভির খবরে দিনটিকে ভারতীয় মুসলিম নারীদের জন্য ‘ঐতিহাসিক’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/08/252.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/08/252-300x300.jpgশিশির সমরাটআন্তর্জাতিক
নয়াদিল্লী সংবাদদাতা । মুসলমানদের বিয়ে ভঙ্গের রীতি ‘মৌখিক তালাক বা তিন তালাক’কে অসাংবিধানিক উল্লেখ করে একে অবৈধ ঘোষণা করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। মঙ্গলবার দেশটির প্রধান বিচারপতি জেএস খেহরের নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ এ রায় দেন। রায়ে তিন তালাককে অবৈধ ঘোষণার পাশাপাশি ভারতের পার্লামেন্টে এ সংক্রান্ত...