SANTRASI-1
রাসেদুল হাসান শাহিন ।
রাজধানী মোহাম্মদপুর রামচন্দ্রপুর মৌজার অর্ন্তভূক্ত, ঢাকা উদ্দ্যানে মনির বাহিনীর সক্রিয় সদস্যরা আবারো বেপোড়য়া হয়ে উঠেছে। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
তুরাগ নদীর পাড় সংলগ্ন ঘাটে বালু-পাথরের যতোগুলো জাহাজ ভিড়ে, প্রত্যেককেই এ চাঁদাবাজীর কবলে পড়তে হয়। এমন কি যাত্রী পাড়া পাড়ের নৌকা গুলিও তাদের এ ধরনের চাঁদাবাজীর আওতায় পড়ে। এ অঞ্চলে যারা নতুন বাড়ী ঘর নির্মাণ করবে, মনির বাহিনীর চাঁদার হার সেখানেও বসবে, এটাই যেন এখানকার নিয়ম।
বেশ কিছুদিন এ বাহিনীর সদস্যরা গা-ডাকা দিয়ে থাকলেও ইদানীং প্রতি রাতেই তাদের দৌরাত্বে অতিষ্ট এলাকাবাসী। স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, পুলিশের খাতায় কালো তালিকাভূক্ত থাকায়, রাতে তাদের সশ¯্র মহড়া চলে। তুরাগ পাড়ে মনিরের বাগান বাড়ীর পশ্চিমে ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদকের হাটও বসে। আকবর, সুলতান, বশির, মিজান, হোসেন সহ অনেকেই প্রভাব বিস্তার করে থাকে এ সব অবৈধ ব্যবসায়। মোহাম্মদপুর বিহারী ক্যাম্পের কিছু যুবকও এ অঞ্চলে আনাগোনা করে সহযোগিতা করে থাকে বলে সুত্রে জানা যায়।
স্থানীয়রা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে আরো জানায়, বাহিনী প্রধান মনির কিছুদিন আগে ব্যক্তিগত কারনে দেশের বাহিরে যায়। তার অবর্তমানে ডান হাত খ্যাত হোসেন সম্বন্বয় করে থাকে, মনিরের মা সাবেয়া খাতুনের পরামর্শে ও সহযোগিতায়। বেশ কিছু মামলার আসামী মনির ও তার সংগীরা। অপরাধী চক্র সুযোগ পেলেই মামলার বাদীকে হুমকি সহ নাজেহাল করতে থাকে অনবরত। বাদীরা সবাই আতংকে থাকে। অন্যায় ভাবে অন্যের জমি দখল, খাল দখল, তুরাগ নদীর সীমানা প্রাচীর সরিয়ে নিজের দখলে রেখে বাগান বাড়ী নির্মাণ, স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মালামাল লুট, ব্যবসায়ী কর্মচারীদেরকে মারধর করে আটক রেখে মুক্তিপন আদায়সহ বিভিন্ন অপকর্মে জড়িত মনির বাহিনীর অপরাধের মাত্রা জেনো থেমে নেই। প্রাণভয়ে নির্যাতিতরা অভিযোগ করার সাহসও হারিয়ে ফেলেছে।
সচেতন মহল এ সমস্ত অপকর্মের স্থায়ী সমাধান আশা করে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে। নদী সীমানা দখল মুক্ত ও খাল দখল মুক্ত, অপরাধ মুক্ত সুন্দর নগরী গড়তে সরকারের সিদ্ধান্তে বাস্তবায়ন ও এখন সময়ের দাবী।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/07/SANTRASI-1.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/07/SANTRASI-1.jpgআবুল কালাম আজাদএক্সক্লুসিভ
রাসেদুল হাসান শাহিন । রাজধানী মোহাম্মদপুর রামচন্দ্রপুর মৌজার অর্ন্তভূক্ত, ঢাকা উদ্দ্যানে মনির বাহিনীর সক্রিয় সদস্যরা আবারো বেপোড়য়া হয়ে উঠেছে। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। তুরাগ নদীর পাড় সংলগ্ন ঘাটে বালু-পাথরের যতোগুলো জাহাজ ভিড়ে, প্রত্যেককেই এ চাঁদাবাজীর কবলে পড়তে হয়। এমন কি যাত্রী পাড়া পাড়ের নৌকা গুলিও তাদের এ ধরনের...