বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ১০:৪৮ অপরাহ্ন
Uncategorized

স্বতন্ত্র বেতন স্কেল দাবিতে ঢাবি শিক্ষকদের অবস্থান ধর্মঘট

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৫
  • ১৬ দেখা হয়েছে

1439740204
অবিলম্বে দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন স্কেল প্রবর্তন করাসহ ৪ দফা দাবিতে কর্মবিরতি ও অবস্থান ধর্মঘট পালন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। রবিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত ৩ ঘণ্টাব্যাপী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। একই দাবিতে এসময় স্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়।

এদিকে, বিকেলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন থেকে জানানো হয়েছে, দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন স্কেল ঘোষণা এবং প্রস্তাবিত অষ্টম বেতন স্কেল পুনঃনির্ধারণের দাবিতে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের আহ্বানে রোববার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত ফেডারেশনভুক্ত দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মবিরতি ও অবস্থান ধর্মঘট পালন এবং স্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান শুরু করা হয়েছে। স্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান চলবে ২০ আগস্ট পর্যন্ত।

একই দাবিতে চলতি মাসের পরবর্তী প্রতি রোববার (২৩ ও ৩১ আগস্ট) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ৩ ঘণ্টা ফেডারেশনভুক্ত সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের এ কর্মসূচি পালন করা হবে। তবে তবে এ সময় পরীক্ষাসমূহ কর্মবিরতির আওতামুক্ত থাকবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক নাজমা শাহীন, অধ্যাপক মেজবাহ কামাল, অধ্যাপক ড. শফিক উজ জামান, অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন, অধ্যাপক নিজামুল হক ভূইয়া, অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী, অধ্যাপক ড. এ জেড এম সফিকুল আলম ভূঁইয়া প্রমুখ।সহ আরও ২০জন শিক্ষক নেতা বক্তব্য রাখেন।

এ সময় বক্তারা বলেন, এ আন্দোলন শুধু বেতন-ভাতার জন্য নয়, শিক্ষা-ব্যবস্থাকে প্রাতিষ্ঠানিক ও সামগ্রীক রূপ দিয়ে প্রকৃত মানবসম্পদ সৃষ্টির দ্বার উন্মোচন করার আন্দোলন, যেখানে শিক্ষকদের জবাবদিহিতার বিষয়ও থাকবে। শিক্ষকরা অতীতেও যেভাবে দায়িত্ব পালনে কার্পণ্য করেন নাই, ভবিষ্যতেও করবেন না।

বক্তারা আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষকদের মর্যাদা ও সুযোগ-সুবিধার প্রতি অত্যন্ত সহানুভূতিশীল। ফলে তাঁর নেতৃত্বাধীন সরকার এ ধরনের বৈষম্যমূলক বেতন কাঠামো বাতিল করে সকল পক্ষের কাছে গ্রহণযোগ্য এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের যৌক্তিক প্রাপ্যসমূহ প্রদান ও যথাযোগ্য মর্যাদা নিশ্চিত করে সংশোধিত বেতন কাঠামো পুনঃনির্ধারণ করবে।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক

মুহাম্মদ মিজানুর রহমান চৌধুরী

© All rights reserved by Crimereporter24.com
themesba-lates1749691102