the-family_86510
মানুষ শখ করে বিভিন্ন রকম পশু ও পাখিকে পোষ মানায়। কিন্তু বাঘকে পোষ মানাতে শুনেছেন কখনো? তাও আবার একটি দুটি নয়, সাতটি! আর এ দুঃসাহসিক কাজটিই করেছে ব্রাজিলের একটি পরিবার।

ব্রাজিলের ওই পরিবারটি হিংস্র জীবজন্তু বশে আনাটাকে ঠিক অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে গেছে। সাতটি বাঘ সারাক্ষণ পরিবারটির সঙ্গে থাকছে। পরিবারের বাচ্চারা জন্ম থেকে বাঘকে ভয় পাওয়ার পরিবর্তে তাদের সঙ্গে খেলাধূলা করে আসছে। এমনকি পরিবারের সদস্যদের গোসলেও সঙ্গী হচ্ছে বাঘ!

পরিবারের প্রধান আরিয়েস বরগেস জানান, এক সার্কাসে দুটি বাঘ শাকবকের দুরবস্থা দেখে মায়া লাগে তার। তিনি এ দুটি শাবককে বাড়িতে নিয়ে আসেন। বাঘ শাবক দুটিকে উদ্ধার করার পর তিনি প্রথমে বাড়িতে এনে তাদেরকে খাওয়ালেন। তারপর থেকে এত বছর যাবত তিনি ও তার তিন কন্যা নায়ারা (২০), উরাইয়া(২৩) এবং ডেউসানিরা (২৪) বাঘদের সঙ্গে একত্রে খাবার খাওয়া, খেলাধুলা করা থেকে শুরু করে একই বিছানায় পর্যন্ত ঘুমায়!

দীর্ঘদিন ধরে মানুষের সঙ্গে থাকার ফলে ওই পরিবারের প্রতিটি সদস্যের সঙ্গে বাঘদের সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হয়ে গেছে বলে মনে হয়।

শুভ সমরাটএক্সক্লুসিভ
মানুষ শখ করে বিভিন্ন রকম পশু ও পাখিকে পোষ মানায়। কিন্তু বাঘকে পোষ মানাতে শুনেছেন কখনো? তাও আবার একটি দুটি নয়, সাতটি! আর এ দুঃসাহসিক কাজটিই করেছে ব্রাজিলের একটি পরিবার। ব্রাজিলের ওই পরিবারটি হিংস্র জীবজন্তু বশে আনাটাকে ঠিক অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে গেছে। সাতটি বাঘ সারাক্ষণ পরিবারটির সঙ্গে থাকছে। পরিবারের...