শিরোনাম

টানা ৪ দিনের অবরোধে অচল বুড়িগঙ্গা প্রথম সেতু

Keranigonj0-150x90
ঢাকার বুড়িগঙ্গা প্রথম সেতু টোলমুক্ত করার দবিতে টানা চার দিনের মতো অবরোধ কর্মসূচি পালন করছেন পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা।

মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে ট্রাক, সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও কাভার্ডভ্যানের মালিক ও শ্রমিকরা সেতুর দুই পাশ অবরোধ করে রাখেন। ফলে সেতুটি দিয়ে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

পরিবহন শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক এমদাদুল হক দাদন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত ব্রিজটি টোলমুক্ত করা না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব। মহাসড়কের এই ব্যারিকেড থাকবে।’

আন্তঃজেলা ট্রাক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. রানা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘ট্রাক মালিক সমিতির সকল মালিক ও শ্রমিক রাস্তায় আছি। আমরা শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। টেলামুক্ত না করে আমরা ঘরে ফিরব না।’

১ আগস্ট থেকে কেরানীগঞ্জ, শ্যামপুর, জুরাইন ও পোস্তাগোলার এসব পরিবহন শ্রমিক বুড়িগঙ্গা প্রথম সেতু টোলমুক্ত করার দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন।

আন্দোলনের ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে এর আগে প্রশাসনকে ৩৬ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয় বুড়িগঙ্গা শ্রমিক, ট্রাক, অটোরিকশা, আন্দোলন সংগ্রাম পরিষদ।

এদিকে টোলমুক্তির দাবিতে আন্দোলনকারীদের কাছ থেকে সমস্যা সমাধানে সোমবার শ্যামপুর আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা ৭২ ঘণ্টা সময় নেন।