শিরোনাম

ভরিপ্রতি স্বর্ণের দাম হবে সাড়ে ১১ হাজার টাকা

gold2_97575
বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দরপতন অব্যাহত রয়েছে। গত ১৯ জুলাই বিশ্বব্যাপী স্বর্ণের দামে বড় দরপতন ঘটে। এরপর এই পণ্যের দাম আরও কমতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন স্বর্ণ বাজার বিশ্লেষক ক্লাউডি আর্ব। খবর সিএনএন’র

বিশ্লেষক ক্লাউডি অার্বের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্ববাজারে বর্তমানে প্রতি আউন্স (২.৪৩০৫ ভরি) স্বর্ণ ১১০০ মার্কিন ডলারে বিক্রি হচ্ছে। এই দাম কমে ৩৫০ মার্কিন ডলার পর্যন্ত অাসতে পারে। এমনটি হলে বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম পড়বে প্রায় সাড়ে ২৭ হাজার টাকা। সে হিসাবে প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম প্রায় সাড়ে ১১ হাজার টাকা হতে পারে। বিষয়টিকে নাটকীয় দরপতন বলে অভিহিত করেছেন মি. অার্ব। ক্লাউডি আর্বের এই পূর্বাভাস সত্য হলে ২০০৩ সালের পর এটি হবে স্বর্ণের সর্বনিম্ন বিক্রয়মূল্য।

প্রতিবেদনে আরো জানানো হয়েছে, ক্লাউডি আর্বের এই ভবিষ্যদ্বাণী সত্য হতে পারে। কেননা ২০১২ সালে স্বর্ণের দাম কমবে বলেও পূর্বাভাস দিয়েছিলেন ক্লাউডি। সে সময়ে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১৬০০ মার্কিন ডলার। আর ক্লাউডির ভবিষ্যদ্বাণীর পর এই দাম কমে ১১০০ ডলার পর্যন্ত হয়েছিল।

এ বিষয়ে ক্লাউডি আর্ব বলেন, ‘স্বর্ণের দামের পরিবর্তনশীলতা শেয়ার বা অন্যান্য পণ্যের চেয়ে কম বা বেশি নয়। এটি অনেক বেশি মূল্যে বিক্রি হতে পারে এবং বর্তমানে তাই হচ্ছে।’