বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন
Uncategorized

বান্দরবানের সঙ্গে সারাদেশের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০১৫
  • ১৫ দেখা হয়েছে

Bandarban1-150x81
ভারি বর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলে বান্দরবানের সূয়াল ব্রিজ দেবে যাওয়ায় সারাদেশের সঙ্গে বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে দশটা বান্দরবান-চট্টগ্রাম, কক্সবাজারসহ সারাদেশের সঙ্গে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। রাস্তার দু’পাশে আটকা পড়েছে শতশত যানবাহন।

এদিকে, প্রবল বর্ষণে পাহাড় ধসে সড়ক ভেঙ্গে দেবে যাওয়ায় রুমা এবং থানছি উপজেলায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে ৯ দিন ধরে। এ কারণে পর্যটকরাও যেতে পারছেন না ট্যুরিস্ট স্পট নীলগিরি, চিম্বুকসহ উপজেলা দুটির দর্শণীয় স্থানগুলো ভ্রমণে।

বান্দরবানের সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী আজিজুল মোস্তফা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে বান্দরবান-কেরানীহাট প্রধান সড়কের সূয়ালক চেকপোস্ট এলাকায় একটি ব্রিজ নিচের দিকে দেবে গেছে। এতে সারাদেশের সঙ্গে বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। তবে সংযোগ স্থাপনে দেবে যাওয়া ব্রিজের ওপরে একটি বেইলি ব্রিজ স্থাপনের কাজ চলছে বলে জানান তিনি।

এদিকে, বৃহস্পতিবার থেকে আবারও অব্যাহত ভারি বর্ষণে বান্দরবান জেলা শহরের আর্মী পাড়া, মেম্বারপাড়া, শেরেবাংলা নগর, ইসলামপুরসহ নিম্নাঞ্চল আবারও প্লাবিত হয়েছে। ঘরবাড়ি ছেড়ে দুর্গত মানুষ আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থান নিয়েছে। ভারি বর্ষণে অভ্যন্তরীণ সড়কসহ বিভিন্ন স্থানে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটেছে। পাহাড় ধসের ঝুকিতে বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে মাইকিং করা হচ্ছে।

পৌর মেয়র মোহাম্মদ জাবেদ রেজা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, বন্যার পানি নেমে যাওয়া দু’দিনের মাথায় আবারও নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ছে। মানুষের দুর্ভোগ বেড়েছে বহুগুণে। দুর্গত মানুষেরা আবারও আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে ফিরছে। বৃষ্টিতে পাহাড় ধসে প্রাণহানির আশঙ্কায় ঝুকিপূর্ণ বসতি ছেড়ে লোকজনদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে মাইকিং করা হচ্ছে। নৌকা দিয়ে দুর্গত মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে আনা হচ্ছে।

এদিকে, অবিরাম বর্ষণে বান্দরবানে সাঙ্গু ও মাতামুহুরী নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে জেলার থানছি উপজেলার বড়মদক, যুগিরাম পাড়া, অতিরাম পাড়া, জাফরাং পাড়া এলাকায় বন্যায় ৩টি গ্রাম প্লাবিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

রেমাক্রী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মালিরাম ত্রিপুরা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে রেমাক্রী ইউনিয়নের মড়মদক বাজারসহ কয়েকটি পাড়া প্লাবিত হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক

মুহাম্মদ মিজানুর রহমান চৌধুরী

© All rights reserved by Crimereporter24.com
themesba-lates1749691102