বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ১০:২২ অপরাহ্ন
Uncategorized

কি আকাঙ্ক্ষা নিয়ে মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম, আর কি পেলাম!

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৪ জুলাই, ২০১৫
  • ১২ দেখা হয়েছে

1437672466

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার বাদীর জেরা গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেরার এক পর্যায়ে আদালতের বিচারক আবু আহমেদ জমাদার বলেন, কি আকাঙ্ক্ষা নিয়ে মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম, আর কি পেলাম তার একটি শ্বেতপত্র প্রকাশ করা দরকার। মামলার বাদী দুদকের উপ-পরিচালক হারুন-অর-রশিদকে জেরার এক পর্যায়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনকে তিনি একথা বলেন। এর আগে খন্দকার মাহবুব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ২০০৯ সালের আগে দায়ের করা দুর্নীতির মামলাগুলোর প্রসঙ্গ উত্থাপন করেন। দুদকের আইনজীবী এ বিষয়ে আপত্তি তুললে খন্দকার মাহবুব ওয়ান ইলেভেনের আগে রাজপথে মানুষ পিটিয়ে হত্যা মামলার চার্জশীটের বিষয়টি অবতারণা করেন। তখন বিচারক বলেন, চ্যারিটেবল মামলার সঙ্গে এর কোন প্রাসঙ্গিকতা নেই। এরপর খন্দকার মাহবুব আদালতকে বলেন, তাহলে কি আরো দুর্নীতি মামলার তথ্য দরকার? এ পর্যায়ে বিচারক বলেন, ১৯৭১ সাল থেকে এ পর্যন্ত যত দুর্নীতির মামলা রয়েছে সেগুলোর তথ্য দিন, শ্বেতপত্র প্রকাশ করি।

এর আগে খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বাদীর কাছে জানতে চান যে, এই মামলায় খালেদা জিয়া সরকারি কোন অর্থ আত্মসাত্ বা ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন কিনা? জবাবে হারুন-অর-রশিদ আদালতে বলেন, ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত বেগম খালেদা জিয়া যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তখন অবৈধ উপায়ে এই ট্রাস্টের অর্থ সংগ্রহ করেছেন। এখানে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে কোন মামলা করা হয়নি। প্রায় দেড় ঘণ্টা জেরার পর তা মুলতুবির আবেদন জানান খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। পরে আদালত ৩ আগস্ট অসমাপ্ত জেরা সম্পন্ন করার জন্য দিন ধার্য করে দেন। এর আগে সকাল পৌনে ১০টায় পুরান ঢাকার বকশিবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ প্রাঙ্গণে হাজির হন খালেদা জিয়া। প্রায় ১৫ মিনিট পর তিনি আদালত কক্ষে প্রবেশ করেন। এরপরই বিচারক আবু আহমেদ জমাদার এজলাসে আসেন। এ সময় খালেদা জিয়ার আইনজীবী এম মাহবুবউদ্দিন খোকন বলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বাদীর সাক্ষ্য বাতিলের আবেদন খারিজ সংক্রান্ত হাইকোর্টের আদেশের সার্টিফায়েড কপি পাওয়া যায়নি। পাওয়া গেলে লিভ টু আপিল দায়ের করা হবে। এজন্য এ মামলার কার্যক্রম মুলতবির আবেদন জানাচ্ছি। আদালত বলেন, আবেদনটি নথিভুক্ত থাক। এরপর আদালত জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার বাদিকে জেরার জন্য খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের নির্দেশ দেন।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক

মুহাম্মদ মিজানুর রহমান চৌধুরী

© All rights reserved by Crimereporter24.com
themesba-lates1749691102