1436801219

সিলেটের শিশু রাজন হত্যা মামলার অন্যতম আসামি কামরুল ইসলামকে (২৮) সৌদি আরবে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার জেদ্দা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

রিয়াদে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ বিষয়টি নিশ্চত করেছেন।

এনিয়ে এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেফতার করা হল।

এর আগে ঘটনার পরপরই জনতা মুহিত আলম নামে একজনকে ধরে পুলিশে দেয়। সোমবার সকালে ইসমাইল হোসেন আবলুছ নামে আরেকজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত বুধবার সকালে পিটিয়ে হত্যা করা হয় ১৩ বছরের রাজনকে। নির্যাতনকারীরা শিশুটিকে পেটানোর ভিডিও ধারণ করে এবং ইন্টারনেটে তা ছড়িয়ে দেয়। ২৮ মিনিটের ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে শুরু হয় তোলপাড়।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে জালালাবাদ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলায় আটক মুহিত আলম (২৫) ও তার ভাই কামরুল ইসলাম (২৮), তাদের সহযোগী আলী হায়দার ওরফে আলী (৩৪) ও চৌকিদার ময়না মিয়া ওরফে বড় ময়নাকে (৪৫) আসামি করা হয়েছে।

এদিকে রাজনের ময়না তদন্তকারী চিকিৎসক জানিয়েছেন, মস্তিষ্কে আঘাতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মৃত্যু হয়েছে শিশুটির। তার শরীরে ৬৪টি আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। পরে তার মরদেহ গুম করার চেষ্টাকালে পুলিশের হাতে আটক হয় মুহিত আলম।

নৃপেন পোদ্দারআইন-আদালত
সিলেটের শিশু রাজন হত্যা মামলার অন্যতম আসামি কামরুল ইসলামকে (২৮) সৌদি আরবে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার জেদ্দা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। রিয়াদে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ বিষয়টি নিশ্চত করেছেন। এনিয়ে এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেফতার করা হল। এর আগে ঘটনার পরপরই জনতা মুহিত আলম নামে একজনকে...