boyon-citro-pic-2-290x193
যুগের আধুনিকায়নে বাঙলার অনেক ঐতিহ্য হারিয়ে যাচ্ছে, এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ঐতিহ্য বয়নচিত্র। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে দেশের রপ্তানিযোগ্য প্রধান ফসল সোনালী আশ পাট। যে পাট একসময় স্বর্ণের দামে বিক্রি হয়ে দেশে বিদেশে যেত, যা এখনও চলে যাচ্ছে দেশের সীমানা ছাড়িয়ে দূর দেশে। এখনও যেন এর আবেদন ফুরোয়নি। এখনও বাঙালি জীবনে বয়নচিত্র শোভা পায়। যেমন- ওয়ালম্যাট, জায়নামাজ, সতরঞ্জি, কার্পেট ইত্যাদি। একটু পেছনে ফিরে তাকালেই ওই পাট দিয়ে অনেক ধরনের শিল্প বা কুটির শিল্প তৈরী হয়।
শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজিত বয়নচিত্র কর্মশালায় শেষদিনে ঘুরে এমনসব অনন্য বয়নচিত্র সোনালি আঁশ পাটের ব্যবহার দেখা মিলল, যা নিপুণ হাতের কুশলী ছোঁয়ায় হয়ে উঠেছে অনন্য সুন্দর।
ঐতিহ্য ধরে রাখার প্রত্যয়ে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ও ট্যাপেট্টি এন্ড পেইটিং স্টুডিওর যৌথ উদ্যোগে একাডেমীর জাতীয় চিত্রশালার ভাস্কর্য গ্যালারীতে ১২দিনব্যাপি বয়নচিত্র কর্মশালাটির।
রোববার সকালে একাডেমীর জাতীয় চিত্রশালার ভাস্কর্য গ্যালারীতে সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, একাডেমির চারুকলা বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, কর্মশালার মূখ্য প্রশিক্ষক শিল্পী তাজুল ইসলাম। কর্মশালায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার ছাত্র-ছাত্রী এবং ২জন চিত্রশিল্পী যথাক্রমে সামিনা নাফিজ ও আফরোজা জামিল কংকাসহ মোট ২৭ জন অংশগ্রহণ করেন।
কর্মশালার মূখ্য প্রশিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন শিল্পী তাজুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির পক্ষে সার্বক্ষণিক সহযোগিতায় ছিলেন ইন্সট্রাক্টর প্রদ্যুৎ কুমার দাস ও এস এম মিজানুর রহমান।

সুরুজ বাঙালীবিনোদন
যুগের আধুনিকায়নে বাঙলার অনেক ঐতিহ্য হারিয়ে যাচ্ছে, এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ঐতিহ্য বয়নচিত্র। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে দেশের রপ্তানিযোগ্য প্রধান ফসল সোনালী আশ পাট। যে পাট একসময় স্বর্ণের দামে বিক্রি হয়ে দেশে বিদেশে যেত, যা এখনও চলে যাচ্ছে দেশের সীমানা ছাড়িয়ে দূর দেশে। এখনও যেন এর আবেদন ফুরোয়নি। এখনও বাঙালি...