শিরোনাম
সুস্থ মুশতাকের হঠাৎ মৃত্যু অনেক প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে : ড. কামালবেসরকারি ব্যবস্থাপনায় বন্ধ পাটকল চালুর নীতিতে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতিস্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী আরও এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশায় এলো স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীবিমান বাহিনীর বার্ষিক শীতকালীন মহড়া ‘উইনটেক্স-২০২১’ শুরুপ্রকল্প পরিচালকদের এলাকায় অবস্থান করতে হবে : শিল্পমন্ত্রীপাহাড়ে খালি সেনাক্যাম্পে পুলিশ মোতায়েন করা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীবীমা পদ্ধতির আধুনিকায়নে প্রযুক্তি ব্যবহারের পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীরপ্রেসক্লাবের নিরাপত্তা রক্ষায় আরও সজাগ থাকতে হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীপ্রেসক্লাবের সামনে ছাত্রদলের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, আহত বেশ কয়েকজনগণফোরামের সভাপতি থেকে ড. কামালকে বাদ দেওয়ার প্রস্তাব

পাউবোর ৩২ কোটি টাকার বাঁধে ভাঙন

1_92983
বাগেরহাটের শরণখোলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৩৫/১ পোল্ডারে ৩২ কোটি টাকায় সদ্য সংস্কার হওয়া বেড়িবাঁধের তাফালবাড়ি লঞ্চঘাট অংশের ২০০ মিটার বৃহস্পতিবার রাতে বলেশ্বর নদীতে ধসে পড়েছে। বেড়িবাঁধটির সংস্কার কাজ নিম্নমানের হওয়ায় বলেশ্বর নদীর প্রবল ঢেউ আর অবিরাম বৃষ্টিপাতের ফলে কয়েকটি অংশ ধসে গেছে। ফাটল দেখা দিয়েছে আরো বিভিন্ন অংশে। বাঁধ ধসে তাফালবাড়ি লঞ্চঘাট সংলগ্ন স্লুইস গেট এলাকা দিয়ে পানি ঢুকে কমপক্ষে ১০টি গ্রাম প্লাবিত হওয়ার পাশাপাশি আমনের বীজতলা, ঘরবাড়িসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। শুক্রবার বিকালে বাগেরহাটের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌলশী মো. মাঈনউদ্দিন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ২০০৭ সালের ১৫ নভেম্বরের সুপার সাইক্লোন সিডরের আঘাতে বলেশ্বর নদীর কোলঘেঁষে নির্মিত পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৩৫/১ পোল্ডারের বেড়িবাঁধের ব্যাপক ক্ষতি হয়। গত অর্থবছরে সাত দশমিক ১০ কিলোমিটার বাঁধে সংস্কার ও ব্লক স্থাপনে ৩২ কোটি টাকা ব্যয়ে ঢাকার দুটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে ওই কাজটি করে। অভিযোগ রয়েছে, বাগেরহাট পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে মাত্র দু মাস আগে যেনতেনভাবে কাজটি শেষ করা হয়। ফলে বেড়িবাঁধ সংস্কারের পরপরই বিভিন্ন অংশ ধসে পড়তে শুরু করে। বলেশ্বর নদীর প্রবল ঢেউ আর অবিরাম বৃষ্টিপাতের ফলে বাঁধের তাফালবাড়ি লঞ্চঘাট অংশের ২০০ মিটার বৃহস্পতিবার রাতে ধসে পড়ে। এখন জোয়ারের পানিতে যেকোন সময় প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে সাউথখালী ইউনিয়নের বগী, তেরাবেকা, গাবতলা, চালিতাবুনিয়া, রায়েন্দা ইউনিয়নের ঝিলবুনিয়া, রাজেশ্বর, লাকুড়তলাসহ কমপক্ষে ১০টি গ্রাম। বাগেরহাট পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌলশী মো. মাঈনউদ্দিন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ধসে পড়া এলাকাগুলোর বাঁধ ভেঙে যাতে পানি ঢুকতে না পারে সেজন্য শনিবার (আজ) সকাল থেকে ‘বাঁধ রক্ষার’ কাজ শুরু হবে। তবে তিনি ঠিকাদারের নিম্নমানের কাজ সম্পর্কে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।