hasina 60_147797
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্বের প্রতি সম্পূর্ণ আস্থা রেখে সেনা সদস্যদের সকল কাজে এগিয়ে যাওযার প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেছেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রতিটি সদস্য এ উন্নয়ন অগ্রযাত্রার অংশীদার। আপনারা সর্বোচ্চ দেশপ্রেম ও কর্তব্যপরায়নতার মাধ্যমে বাংলাদেশকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নেবেন। আমার প্রত্যাশা আপনারা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে বিশ্বের বুকে একটি মর্যাদাপূর্ণ বাহিনীতে পরিণত করবেন।

প্রধানমন্ত্রী রোববার বিকেলে ঢাকা সেনানিবাসে পিজিআর সদর দফতরে স্বতন্ত্র প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্টের ৪০তম বার্ষিকী-২০১৫ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। খবর বাসসের

প্রধানমন্ত্রী বলেন, নেতৃত্বের প্রতি সম্পূর্ণ আস্থা রেখে সকল কাজে আপনারা এগিয়ে যাবেন এই আমার প্রত্যাশা। একই সাথে আমি আশা করি, সকল কমান্ডারগণও তাদের অধীনস্থদের প্রতি সব সময়ই প্রয়োজনীয় মনোযোগ বজায় রাখবেন।

ভারপ্রাপ্ত কমান্ডডেন্ট কর্নেল মো. জাহাঙ্গীর হারুন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) তারিক আহমেদ সিদ্দিক, তিন বাহিনীর প্রধান, প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার, বিশিষ্ট নাগরিকবৃন্দ ও সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা এতে উপস্থিত ছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, নিরাপত্তার দায়িত্ব পালনে প্রশিক্ষণের কোন বিকল্প নেই। আমরা প্রতিটি ক্ষেত্রে ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছি। আমি আশা করি, আপনারা তথ্য-প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহারের মাধ্যমে নিয়মিত প্রশিক্ষণ ও পেশাগত অনুশীলন চালিয়ে যাবেন।

তিনি বলেন, আমাদের সরকার আপনাদের কল্যাণে এসকল পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে যাতে আপনাদের চাকরি ও পারিবারিক জীবন স্বাচ্ছন্দময় হয়। দেশ ও জাতির সেবায় আপনারা যাতে আরও ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত হন।

শেখ হাসিনা বলেন, শুধু সামরিক বাহিনী নয়,আমরা প্রতিটি সেক্টরে বাংলাদেশকে কাঙ্খিত লক্ষে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আমরা ঘোষণা দিয়েছিলাম ২০২১ সালে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করব। তার আগেই আমরা সে লক্ষ্য পূরণ করতে যাচ্ছি। বিশ্ব ব্যাংক বাংলাদেশকে নিম্ন মধ্য আয়ের দেশ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। অর্থাৎ আমরা মধ্য আয়ের দেশের কাতারে উঠে গেছি। এটি আমাদের বিরাট অর্জন। আমরা বাংলাদেশকে আরও অনেক উচ্চতায় তুলে ধরার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছি।

হীরা পান্নাজাতীয়
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্বের প্রতি সম্পূর্ণ আস্থা রেখে সেনা সদস্যদের সকল কাজে এগিয়ে যাওযার প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেছেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রতিটি সদস্য এ উন্নয়ন অগ্রযাত্রার অংশীদার। আপনারা সর্বোচ্চ দেশপ্রেম ও কর্তব্যপরায়নতার মাধ্যমে বাংলাদেশকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নেবেন। আমার প্রত্যাশা আপনারা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে বিশ্বের বুকে একটি মর্যাদাপূর্ণ বাহিনীতে পরিণত...