আজ থেকে মোবাইলে কথা বলার খরচ কমছে

01112-150x85

চূড়ান্ত বাজেটে মোবাইল ফোন সেবায় সম্পূরক শুল্ক ২ শতাংশ কমানো হয়েছে। ফলে আজ বৃহস্পতিবার থেকে মোবাইল ফোনে কথা বলা, ইন্টারনেট ব্যবহার, এসএমএস প্রেরণের ক্ষেত্রে খরচ কিছুটা কমেছে।

(প্রিয় টেক) বাজেটে মোবাইল ফোন সেবায় সম্পূরক শুল্ক বৃদ্ধির ঘোষণা দেওয়ার পর ৪ জুন থেকেই অতিরিক্ত ৫ শতাংশ টাকা কটতে শুরু করেছিল মোবাইল ফোন অপারেটররা। তবে চূড়ান্ত বাজেটে মোবাইল ফোন সেবায় সম্পূরক শুল্ক ২ শতাংশ কমানো হয়েছে। ফলে আজ বৃহস্পতিবার থেকে মোবাইল ফোনে কথা বলা, ইন্টারনেট ব্যবহার, এসএমএস প্রেরণের ক্ষেত্রে খরচ কিছুটা কমেছে। প্রস্তাবিত বাজেটে এ ধরনের সেবার ওপর সম্পূরক শুল্ক ৫ শতাংশ করা হলেও অর্থবিল পাস করার সময় অর্থমন্ত্রী এটি ৫ শতাংশ থেকে ৩ শতাংশ কমানোর কথা বলেন।

বাজেটের আগে মোবাইল ফোন সেবার ওপর কেবল ১৫ শতাংশ ভ্যাট (মূল্য সংযোজন কর) আরোপ ছিল। ৪ জুন বাজেটে অর্থমন্ত্রীর ওপর আরো ৫ শতাংশ হারে সম্পূরক শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করেন। এর পর দিন থেকেই মোবাইল ফোনের এ ধরনের সেবার ওপর বাড়তি ৫ শতাংশ টাকা গুণতে হচ্ছিল গ্রাহকদের। অর্থাৎ ১০০ টাকার কথা বললে খরচ করতে হতো ১২০.৭৫ টাকা। তবে ২ শতাংশ কমায় বর্তমানে মোবাইল ফোনে ১০০ টাকার সেবার বিপরীতে খরচ হবে ১১৮.৪৫ টাকা।

বাজেটে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের ওপর বাড়তি এ ভ্যাট আরোপের ফলে নিম্ন আয়ের একজন মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর ওপরও নতুন করের ভার পড়ল। অর্থনীতিবিদরাও এ সিদ্ধান্তটির সমালোচনা করেন। সংসদে বিরোধী দলীয় নেত্রী রওশন এরশাদও বাড়তি সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি জানান।

দেশে বর্তমানে সরকারি টেলিটক ছাড়াও গ্রামীণফোন, বাংলালিংক, রবি অজিয়াটা ও এয়ারটেল মোবাইল ফোন সুবিধা দিচ্ছে। বিটিআরসির প্রকাশিত সর্বশেষ (মে-২০১৫) তথ্যানুযায়ী দেশে বর্তমানে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় সাড়ে ১২ কোটি ৫৯ লাখ ৭১ হাজার।