image_239249.hasina naa
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এই বাজেট বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ আরো একধাপ এগিয়ে যাবে এবং দারিদ্র্য বিমোচনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত হবে।
তিনি আজ সংসদে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে এ কথা বলেন।
প্রস্তাবিত বাজেটকে জনকল্যাণমুখী আখ্যা দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, এ বাজেট জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও কল্যাণের পথ সুগম করবে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে।
শত প্রতিকুলতার মাঝেও ভোট দিয়ে এ সরকারকে ক্ষমতায় আসার সুযোগ করে দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী জনগণকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, জনগণ এ সরকারকে নির্বাচিত না করলে এ বাজেট উপস্থাপন সম্ভব হতো না।
সপ্তমবারের মতো বাজেট উপস্থাপন করায় অর্থমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, তার এ বাজেট বাংলাদেশকে প্রতি পদে পদে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। অত্যন্ত সুচিন্তিতভাবে প্রতিটি পদক্ষেপ গ্রহণ করার ফলে বাংলাদেশকে জাতির পিতার আদর্শ বাস্তবায়নের পথে এগিয়ে নেয়া সম্ভব হচ্ছে, যা ক্ষুধা দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ হিসেবে বাঙালি জাতিকে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নকে আজ আর কেউ অস্বীকার করতে পারবে না। বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফ’র তথ্যমতে বাংলাদেশের অর্থনীতি ১ বছরের ব্যবধানে ৫৮তম স্থান থেকে ১৪ ধাপ এগিয়ে এখন ৪৪তম স্থানে উন্নীত হয়েছে। বাংলাদেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে, অর্থনৈতিকভাবে তারা স্বাবলম্বিতার পথে এগিয়ে যাচ্ছে। ক্রয় ক্ষমতার যে সমতা ভিত্তিতে বাংলাদেশ ২০১৩ সালের ৩৬তম অবস্থান থেকে তিন ধাপ এগিয়ে ২০১৫ সালে ৩৩তম অবস্থানে এসেছে। বাংলাদেশ স্বাবলম্বিতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে বলেই এবার ২ লাখ ৯৫ হাজার ১শ’ কোটি টাকার বাজেট উপস্থাপন করতে পেরেছে। ৬ বছরে বাজেটের পরিমাণ প্রায় তিন গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।
তিনি বলেন, বাজেটের আকার বড় হলেও এ বাজেট বাস্তবায়নযোগ্য। বিগত অর্থবছরে বিএনপি-জামায়াতের নৈরাজ্য, লাগাতার ৩ মাস হরতাল-অবরোধের পরেও সরকার বাজেটের ৯৫.৬৭ ভাগ বাস্তবায়ন করেছে।
শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণের সংগঠন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জনগণের কল্যাণের জন্য এ সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। জনগণের সেবা এবং জনগণের জন্য কাজ করাই হচ্ছে এ সংগঠনের মূল লক্ষ্য। আওয়ামী লীগের কাছে মানুষের প্রত্যাশা বেশি। সে প্রত্যাশা পূরণই হচ্ছে আমাদের লক্ষ্য। এ জন্য আওয়ামী লীগ যখনই সরকার গঠন করে, তখন দেশে বিনিয়োগ বাড়ে, অর্থনীতি শক্তিশালী হয়, গরীব মানুষের উন্নয়ন হয়। কারণ আওয়ামী লীগ সরকার সব সময় মানুষের উন্নয়নের জন্য কাজ করে।

ওয়াজ কুরুনীজাতীয়
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এই বাজেট বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ আরো একধাপ এগিয়ে যাবে এবং দারিদ্র্য বিমোচনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত হবে। তিনি আজ সংসদে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে এ কথা বলেন। প্রস্তাবিত বাজেটকে জনকল্যাণমুখী আখ্যা দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, এ বাজেট জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন...