jamat-150x97
বিশেষ অভিযান চালিয়ে হাতবোমা, বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ জামায়াতের ২৪ নারী কর্মীকে আটক করেছে কয়রা থানা পুলিশ।

উপজেলার সদর ইউনিয়নের গোবরা গ্রাম থেকে রবিবার বেলা ১১টার দিকে তাদের আটক করা হয়।

খুলনা পুলিশ সুপার (এসপি) হাবিবুর রহমান জানান, গোপন বৈঠক করার সময় পুলিশ অভিযান চালিয়ে জামায়াতের ২৪ নারী কর্মীকে আটক করেছে। এ সময় কয়েকজন দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে তিনটি হাতবোমা এবং বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার জানান, আটকদের বিষয়ে যাচাই-বাচাই এবং তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এ ঘটনায় বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা হবে।

কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেন্দ্রনাথ সরকার জানান, গোবরা গ্রামের মাওলানা আ. হাইয়ের বাড়িতে ২ শতাধিক জামায়াতের নারী কর্মী প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন-এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বেলা ১১টার দিকে বাড়িটি ঘিরে ফেলে পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অনেকে পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থল থেকে তিনটি হাতবোমা, বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ সন্দেহভাজন ২৪ কর্মীকে আটক করা হয়েছে। আটকদের বাড়ি কয়রা সদর ইউনিয়নের গোবরা ও ঘাটাখালি গ্রামে।

আটকরা হলেন— মৃত মোছাদ্দেক আলীর স্ত্রী ফতেমা বেগম (৪৫), আলাউদ্দিন সরদারের স্ত্রী সাকিলা বেগম (২৩), ইয়াসিন সরদারের মেয়ে তামজিলা (১৭), মৃত মোসলেম সরদারের স্ত্রী আছিযা খাতুন (৪০), আবুল বাশারের স্ত্রী আসমা বানু (৪৫), অহেদুলের স্ত্রী শাহিনা পারভীন (৩০), নূর ইসলামের স্ত্রী মমতাজ পারভিন (৩০), জেহের আলীর স্ত্রী হালিমা বেগম (৪০), লাইলি বেগম (৪৫), আসুরা বেগম (৫৫), মরিয়ন বেগম (৫০), তহুরা খাতুন (৫০), তাসলিমা বেগম (৩০), তাসলিমা বেগম (২৫), মোমেনা খাতুন (৩০), কোহিনুর বেগম (২৪), খালেদা বেগম (৪৯), আয়েশা বেগম (৫০), নাজমা বেগম (২২), আনোয়ারা বেগম (৩০), ইসমাতয়ারা (১৯), জাকিয়া বেগম (৪০) তানজিলা বেগম (২২) ও জাকিয়া বেগম (৩৫)।

শুভ সমরাটঅন্যান্য
বিশেষ অভিযান চালিয়ে হাতবোমা, বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ জামায়াতের ২৪ নারী কর্মীকে আটক করেছে কয়রা থানা পুলিশ। উপজেলার সদর ইউনিয়নের গোবরা গ্রাম থেকে রবিবার বেলা ১১টার দিকে তাদের আটক করা হয়। খুলনা পুলিশ সুপার (এসপি) হাবিবুর রহমান জানান, গোপন বৈঠক করার সময় পুলিশ অভিযান চালিয়ে জামায়াতের ২৪ নারী কর্মীকে আটক করেছে। এ...