জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৬তম জন্মবার্ষিকী কুমিল্লায় জাতীয়ভাবে উদযাপনের লক্ষ্যে তিন দিনব্যাপি অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করতে আগামীকাল কুমিল্লায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই দিন তিনি কুমিল্লার বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

কুমিল্লায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে কেন্দ্র করে একদিন আগেই সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। তিন দিনব্যাপি অনুষ্ঠানমালার অনুষ্ঠানস্থল টাউন হল মাঠের পশ্চিমে পাশে ৪৮ফুট ^ ৩৬ ফুট মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। এ মঞ্চে কমপক্ষে ৫০জন অতিথি আসন গ্রহণ করতে পারবেন। মঞ্চ থেকে ৩০ ফুট দূরে অন্যান্য অতিথিদের আসন গ্রহণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। অতিথিসহ মোট ৫ হাজার নাগরিক এসব আসনে আসন গ্রহণ করতে পারবেন। কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, শহীদ বীরমুক্তিযোদ্ধা ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের অন্যতম রূপকার রফিকুল ইসলাম মঞ্চ, টাউন হলের সামনে শহীদ বুদ্ধিজীবী সৌধের সামনের কিছু অংশ ব্যতীত পুরো মাঠ জুড়েই প্যাভেলিয়ন তৈরি করা হয়েছে। পুরো প্যাভেলিয়ন ত্রিপল দিয়ে ঢাকার পর সামিয়ানা টানানো হয়েছে। ২০০ ফুট ^ ১৫০ ফুট নির্মিত এ প্যাভিলিয়নে থাককে ২৫০টি বৈদ্যুতিক পাখা। গতকাল সকাল থেকেই টাউন হল মাঠে উপস্থিত থেকে এসব কাজের বিষয়গুলো মনিটরিং করছিলেন এসএসএফ-এর উপ-পরিচালক মেজর দেওয়ান মঞ্জুরুল হক।

এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) একেএম মামুনুর রশিদ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মুহম্মদ গোলামুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূইয়া, সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ জিয়াউল হক, সিনিয়র তথ্য অফিসার মীর হোসেন আহসানুল কবীর, বীরচন্দ্র গণপাঠাগার ও নগর মিলনায়তনের সাধারণ সম্পাদক আবিদুর রহমান জাহাঙ্গীর, জেলা কালচারাল অফিসার বশীর উল আনোয়ার প্রমুখ।

জেলা কালচারাল অফিসার বশীর উল আনোয়ার জানান, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক পর্বে অংশগ্রহণ করার জন্য ঢাকা থেকে একটি সাংস্কৃতিক দল ২৫ মে সকাল ১০টায় কুমিল্লা এসে পৌঁছবে। এ দলের ৯০জন শিল্পী সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের পর সাংস্কৃতিক পর্ব শুরু হবে। ঢাকার সাংস্কৃতিক দল তাদের পরিবেশনার পর কুমিল্লায় শিল্পীরা সাংস্কৃতিক পর্বে অংশগ্রহণ করবেন।

এদিকে গতকাল দুপুরে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু অনুষ্ঠানস্থলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রবেশ পথ সুগম করার লক্ষ্যে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মার্কেটের ভিতরের আবর্জনা দ্রুত অপসারণ কাজ তদারকী করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী আবদুল ওয়াদুদসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে স্বাগত জানাতে ইতোমধ্যে জিলা স্কুল রোডে স্থাপিত হয়েছে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের পক্ষে বিশাল তোরণ। এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে স্বাগত জানিয়েছেন মেয়র মনিরুল হক সাক্কু। এছাড়াও গোয়ালপট্টি ও ছাতিপট্টি এলাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে স্বাগত জানিয়ে তোরণ স্থাপন করেছে নজরুল মেমোরিয়াল একাডেমী ও কুমিল্লা অজিতগুহ মহাবিদ্যালয়। জিলাস্কুল রোডে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে স্বাগত জানিয়ে অনেকগুলো বিলবোর্ড স্থাপন করা হয়েছে। এতে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়েছেন কুমিল্লা-৬ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের পক্ষে কুমিল্লা জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি ও মহানগর যুবলীগ নেতা আরফানুল হক রিফাত। গতরাতে মহানগরের বিভিন্ন সড়কে বেশ কিছু নতুন তোরণ তৈরির কাজ পরিলক্ষিত হয়। আজকের মধ্যে মহানগরের বিভিন্ন সড়কে শতাধিক তোরণ তৈরি করা হবে বলে জানা গেছে। গতরাত থেকে বেশকিছু স্থানে পোস্টারিংও করা হয়েছে। নগরীর সব জায়গায় এখন আলোচনার একটি বিষয় কুমিল্লায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন, কোটা প্রথা বাতিল, ঢাকা-কুমিল্লা সরাসরি রেল যোগাযোগ, কুমিল্লা বিমান বন্দর চালু-এসব দাবির কথাও ভাবছেন কুমিল্লাবাসী। বঞ্চিত কুমিল্লাবাসীর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে যেনো প্রত্যাশার শেষ নেই।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/05/20120630-hasina-460.gifhttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/05/20120630-hasina-460-300x276.gifশুভ সমরাটস্বদেশের খবর
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৬তম জন্মবার্ষিকী কুমিল্লায় জাতীয়ভাবে উদযাপনের লক্ষ্যে তিন দিনব্যাপি অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করতে আগামীকাল কুমিল্লায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই দিন তিনি কুমিল্লার বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। কুমিল্লায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে কেন্দ্র করে একদিন আগেই সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। তিন দিনব্যাপি...