atok_89802
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া থানা পুলিশের হেফাজত থেকে আবু সুফিয়ান মো. সুমন (৩৫) নামে এক আসামি হাতকড়াসহ পালিয়ে গেছেন।

এ ঘটনায় আখাউড়া থানার কনস্টেবল ফজলু ও মান্নানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার এম এ মাসুদকে আহ্বায়ক করে তিন সদেস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আদালত থেকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে আজ সন্ধ্যায় পুলিশের গাড়ি থেকে তিনি পালিয়ে যান।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মফিজ উদ্দিন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, শুক্রবার ভোরে আখাউড়া পৌর শহরের রেলওয়ে রানিং রুম সংলগ্ন এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আবু সুফিয়ান মো. সুমনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সুমনকে দুপুরে পুলিশ প্রহরায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়। আদালতে পৌঁছানোর পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এর পর কোর্ট পুলিশের ইন্সপেক্টর বিকেলে তাকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠান। কিন্তু সিডব্লিউ (কাস্টডি ওয়ারেন্ট) নিয়ে সুমনকে সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে শহরের কলেজপাড়ার সামনে থেকে সন্ধ্যায় হাতকড়াসহ গাড়ি থেকে দৌড়ে পালিয়ে যান।

জেলা পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, ‘আসামী পালানোর ঘটনায় ফজলু ও মান্নানসহ দুই কনস্টেবলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে

তাহসিনা সুলতানাঅন্যান্য
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া থানা পুলিশের হেফাজত থেকে আবু সুফিয়ান মো. সুমন (৩৫) নামে এক আসামি হাতকড়াসহ পালিয়ে গেছেন। এ ঘটনায় আখাউড়া থানার কনস্টেবল ফজলু ও মান্নানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার এম এ মাসুদকে আহ্বায়ক করে তিন সদেস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আদালত...