এক মিনিটেই সুন্দর!

সুন্দর হওয়ার আকাঙ্ক্ষা থাকে সবার মনেই। সুন্দরের প্রতি আকর্ষণটাও থাকে সবেচেয়ে বেশি। নিজেকে সবার মাঝে সুন্দর হিসেবে উপস্থাপন করার প্রচেষ্টা কে না করেন!

বস্তুতপক্ষে সুন্দর হওয়ার জন্য অফুরন্ত সময় কিংবা কাড়ি কাড়ি টাকার দরকার নেই। প্রতিদিন মাত্র মিনিটখানেক সময় বরাদ্দ করলেই আপনি হয়ে উঠতে পারেন আরো সুন্দর।

তবে কীভাবে? চলুন জেনে নিই:

১. রোজ মধুতে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে মুখে মাখতে পারলে বলিরেখা পড়বে না।

২. এক চামচ গোলাপ পানিতে এক চামচ দুধ আর দু’তিন ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে মুখে মাখুন।

৩. মৃতকোষ তুলে ত্বক পরিষ্কার করতে চান? স্ক্রাবিং করুন এক টুকরো টমেটো দিয়ে।

৪. ত্বকের অতিরিক্ত তেলাভাব নিয়ে বিব্রত? এক চামচ লেবুর রসে এক চামচ গোলাপ জল আর পুদিনা পাতা বাটা মিশিয়ে মুখে মাখুন। এক ঘণ্টা রেখে পানিতে ধুয়ে নিন। ওই পেস্ট আবার মেখে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে নিন। বাড়তি তেল উধাও।

৫. একটি পাত্রে এক চামচ কমলালেবুর রস, এক চামচ মধু বা গোলাপজল মিশিয়ে পেস্ট বানান। এই পেস্ট নিয়মিত মুখে মাখলে উজ্ব্বল ত্বক হাতের মুঠোয়।

৬. নিভাঁজ, টানটান ত্বক চাইলে মুখে মধু মেখে কিছুক্ষণ রেখে তারপর আঙুল দিয়ে মাসাজ করুন। ঈষদুষ্ণ পানিতে ধুয়ে নিন।

৭. বাদাম তেলে মধু মিশিয়ে চোখের তলায় লাগান। এবং আঙুল দিয়ে কিছুক্ষণ মাসাজ করে ধুয়ে নিন। কালচে ছোপ কমে যাবে।

৮. ঘরোয়া ক্লেনজার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করতে চাইলে চালের গুঁড়োয় টকদই মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে মুখে, গলায় ভালো করে মাসাজ করুন। তারপর ধুয়ে নিন।

৯. কিছুতেই ত্বকের শুষ্কভাব কমছে না? নারকেল তেলে মধু আর কমলালেবুর রস মিশিয়ে মুখে মাখুন। কিছুক্ষণ রেখে ঈষদুষ্ণ পানিতে ধুয়ে নিন। শেষে নারকেল তেল বা অন্য কোনও ময়েশ্চারাইজার মাখতে ভুলবেন না।

১০. নিয়মিত টমেটোর রস মুখে মাখলে অবাঞ্ছিত দাগ-ছোপ দূর হবে।

১১. ব্রণ বিব্রত করছে? সিদ্ধ আলুর খোসা মুখে ঘষলে ব্রণ কমবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *