mirzapur-19_88379
টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বাশতৈল ইউনিয়নের হোসেন মার্কেট এলাকা থেকে একটি মাইক্রোবাসসহ পাঁচ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১ হাজার ৩০০ পিস ডব্লিউওয়াই ব্র্যান্ডের ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার সকালে গোড়াই-সখিপুর সড়কের মির্জাপুর উপজেলার বাশতৈল ইউনিয়নের হোসেন মার্কেট এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার নাইকিনবাড়ি গ্রামের হারুন ভূইয়ার ছেলে লাভলু ভূইয়া (২৮), বিয়ালা গ্রামের খন্দকার গোলাম মোস্তফার ছেলে খন্দকার মইনুল ইসলাম (৩০), বাসাইল সদরের দোলাল মিয়ার ছেলে মাইক্রোবাস চালক নবী (২০), মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের গোড়াই গ্রামের আব্দুল বাছেদ মিয়ার ছেলে মিনহাজ (২০) ও টাঙ্গাইল সদরের লাউজানী গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে ফিরোজ মিয়া (২৮)।

এ সময় মাদকের প্রধান ব্যবসায়ী বাসাইল সদরের শফিকুল ইসলাম পালিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

পুলিশ সূত্র জানান, বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে চট্রগ্রাম থেকে একটি নোহা মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্রো চ-৫১-৮৯৮২) যোগে ইয়াবার চালান আসছে। শুক্রবার ভোর থেকে বাশতৈল ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. জাকির হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ গোড়াই-সখিপুর সড়কের ওই স্থানে যানবাহনে তল্লাশি চালায়। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ইয়াবা বহনকারী মাইক্রোবাসটি চেক পোস্ট এলাকায় পৌঁছলে পুলিশ সিগন্যাল দেয়। পুলিশের সিগন্যাল দেখে মাইক্রেবাস থামার সঙ্গে সঙ্গে ইয়াবার প্রধান ব্যবসায়ী বাসাইল সদরের শফিকুল ইসলাম দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ মাইক্রোবাসটিতে তল্লাশি চালিতে সবুজ রংয়ের ১৩টি প্যাকেটের ভেতর থেকে ১ হাজার ৩০০ পিস ইয়াবা

কংকা চৌধুরীচোরাচালানের খবর
টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বাশতৈল ইউনিয়নের হোসেন মার্কেট এলাকা থেকে একটি মাইক্রোবাসসহ পাঁচ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১ হাজার ৩০০ পিস ডব্লিউওয়াই ব্র্যান্ডের ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে গোড়াই-সখিপুর সড়কের মির্জাপুর উপজেলার বাশতৈল ইউনিয়নের হোসেন মার্কেট এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন,...