শিরোনাম
বিএনপি নেতাদের বক্তব্যে মনে হয় বেগম জিয়া কারাগারে থাকলেই ভালো হতো : ড. হাছান মাহমুদপায়েলকে শয্যাসঙ্গিনী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন অনুরাগবিএনপির আন্দোলনের তর্জন-গর্জনই শুধু শোনা যায়, বর্ষণ দেখা যায় না : ওবায়দুল কাদেরশুটিং শুরু হচ্ছে নিরব-অপু জুটির প্রথম ছবিরকরোনামুক্ত হলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমশীতে করোনার প্রকোপ বাড়ার আশঙ্কা, প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান শেখ হাসিনারস্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গাড়িচালকের বিলাসবহুল বাড়ি, ফ্ল্যাট, অঢেল টাকাসাহেদের মামলার রায় ২৮ সেপ্টেম্বরকুষ্টিয়ায় পুলিশের হাতে ধৃত সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কারাগারে, ২ মামলামনপুরায় জোয়ারে নিম্নাঞ্চলসহ ফসলের ক্ষেত প্লাবিত, পানিবন্দি হাজারো মানুষ

খালেদার মামলার পরবর্তী শুনানি ২৩ জুলাই

khaleda zia_88086

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির দুই মামলায় বিশেষ আদালতে হাজিরা দিয়েছেন বেগম খালেদা জিয়া। সাক্ষ্যগ্রহণ মুলতবি চেয়ে সময় আবেদনের উপর পরবর্তী শুনানি আগামী ২৩ জুলাই দিন ধার্য করেছেন আদালত।

এর আগে গত ২৫ মে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধ করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির দুই মামলার পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ১৮ জুন দিন ধার্য করেন আদালত।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার অপর আসামিরা হলেন— খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএ’র নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

অপরদিকে, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার অপর আসামিরা হলেন- খালেদা জিয়ার বড় ছেলে ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগনে মমিনুর রহমান