1441104194
তথ্য-প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা কেনো অসংবিধানিক ঘোষণা করা হবে না জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও আশরাফুল কামালের ডিভিশন বেঞ্চ মঙ্গলবার এই রুল জারি করে। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে আইন সচিব ও তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিবকে এই রুলের জবাব দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু। অন্যদিকে রিট আবেদনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং সংস্কৃতি কর্মীসহ মোট ১১ জনের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার জ্যের্তিময় বড়ুয়া।

ব্যারিস্টার জ্যের্তিময় বড়ুয়া ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, সংবিধানের ৩৯ অনুচ্ছেদে নাগরিকের বাকস্বাধীনতার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু তথ্য-প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারার মাধ্যমে বাক স্বাধীনতাকে খর্ব করা হয়েছে। এই ধারাটি সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক।

বৃহস্পতিবার আইন সচিব এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিবকে আইনের ৫৭ ধারা বাতিলে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে লিগ্যাল নোটিস পাঠানো হয়। কিন্তু ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওই নোটিসের জবাব না পাওয়ায় এই রিট দায়ের করা হয়। রিটে বলা হয়- তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা সংবিধানের ৩৯ অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। কারণ, সংবিধানের এই অনুচ্ছেদে মত প্রকাশের স্বাধীনতার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু এই ৫৭ ধারা মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে খর্ব করছে। আইনের সংশ্লিষ্ট ধারাটি সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হওয়ায় তা বাতিল করা উচিত।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. গীতি আরা নাসরিন, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সাবেক অধ্যাপক আকমল হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক আহমেদ কামাল, সমাজবিজ্ঞানের শিক্ষক অধ্যাপক সামিনা লুত্ফা, ঢাবির শিক্ষক ফাহমিদুল হক, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তানজীম উদ্দিন খান, ঢাকার বাসিন্দা আব্দুস সালাম, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, সাংস্কৃতিক কর্মী অরূপ রাহী ও লেখক রাখাল রাহার পক্ষে এই রিট আবেদন দায়ের করা হয়।

সুরুজ বাঙালীআইন-আদালত
তথ্য-প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা কেনো অসংবিধানিক ঘোষণা করা হবে না জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও আশরাফুল কামালের ডিভিশন বেঞ্চ মঙ্গলবার এই রুল জারি করে। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে আইন সচিব ও তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিবকে এই রুলের জবাব দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। রিট...