92607_x2
দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে একটি ষাঁড়ের মূল্য ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা উঠায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
গতকাল সকালে উপজেলার আবদুলপুর ইউনিয়নের নান্দেড়াই মাদ্‌রাসাপাড়ার মমিনুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে জানা যায়, গত আড়াই বছর পূর্বে ১ বছরের একটি পাকিস্তানি জাতের বাছুর দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার গোদাগারী হাট থেকে ক্রয় করে অতি যত্নে লালন পালন শুরু করেন। ৭ ফিট লম্বা ও ৫ ফিট ৮ইঞ্চি উচ্চতা সম্পন্ন ষাঁড়টির দাম মালিক নির্ধারণ করেন ৩ লাখ টাকা।
মালিক মমিনুল ইসলাম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে দেশী-বিদেশী জাতের গরুর বাছুর ক্রয় করে বড় করে বিক্রি করে থাকেন। ষাঁড়ের মালিকসহ প্রতিবেশী শরিফুল ইসলাম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান রংপুরের হারাগাছ থেকে জনৈক ব্যবসায়ী ক্রেতা ষাঁড়টি ক্রয় করতে ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা দিতে রাজি হন। ষাঁড়টির আনুমানিক ওজন ২৫ মণ। ৬-৭ জন লোক ধরে ষাঁড়টিকে নড়াচড়া করেন।
উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. তারেক হোসেন ও সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাগণ ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, তারা ষাঁড়টি বেশ ক’বার দেখেছেন। কোন ওষুধ প্রয়োগ করা হয়নি। স্বাভাবিক খাদ্য খাওয়ানো হয়েছে। উপজেলায় ছোট বড় ৩৫টির মতো গরুর খামার থাকলেও ওই ষাঁড়টি সবচেয়ে বড়। ষাঁড়টি দেখতে বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন আসায় ষাঁড়টির বিশ্রাম না হওয়াতে মালিক বিব্রত অবস্থায় পড়েছেন।

নৃপেন পোদ্দারএক্সক্লুসিভ
দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে একটি ষাঁড়ের মূল্য ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা উঠায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। গতকাল সকালে উপজেলার আবদুলপুর ইউনিয়নের নান্দেড়াই মাদ্‌রাসাপাড়ার মমিনুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে জানা যায়, গত আড়াই বছর পূর্বে ১ বছরের একটি পাকিস্তানি জাতের বাছুর দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার গোদাগারী হাট থেকে ক্রয় করে অতি যত্নে...