1443295597
বিবিয়ানা গ্যাসক্ষেত্রের জরুরি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে শনিবার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত সিএনজি স্টেশনে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছিল। শনিবার রাত ১২ টার পর থেকে গ্যাস দেওয়া শুরু হয়েছে।
ঈদের পরদিন গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকার কারণে গণপরিবহনের অভাবে দিনভর ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে নগরবাসীকে। নগরবাসীর পাশাপাশি ভোগান্তি সইতে হয়েছে চালকদেরও। ঈদের পরদিন হওয়া সত্বেও তারা গ্যাসের অভাবে গাড়ি বের করতে পারেননি। তাই রাত ১২টার আগেই গ্যাস নিতে ঢাকার বিভিন্ন ফিলিং স্টেশনের সামনে প্রাইভেটকার ও সিএনজি চালিত অটোরিকশা দীর্ঘ সারি বেঁধে দাঁড়িয়ে গেছে।
উল্লেখ্য, সারা দেশে ৫৭০টি সিএনজি ফিলিং স্টেশন রয়েছে। এসব স্টেশনে স্বাভাবিক অবস্থায় বিকাল ৫টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকে। কিন্তু ঈদকে সামনে রেখে ঈদের আগে ও পরের তিন দিনসহ মোট সাতদিন ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখার সিদ্ধান্ত দিয়েছিল সরকার। পরে হঠাৎ করে বিবিয়ানার রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ২৪ ঘণ্টা বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/09/1443295597.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/09/1443295597-300x300.jpgশুভ সমরাটশেষের পাতা
বিবিয়ানা গ্যাসক্ষেত্রের জরুরি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে শনিবার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত সিএনজি স্টেশনে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছিল। শনিবার রাত ১২ টার পর থেকে গ্যাস দেওয়া শুরু হয়েছে। ঈদের পরদিন গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকার কারণে গণপরিবহনের অভাবে দিনভর ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে নগরবাসীকে। নগরবাসীর পাশাপাশি ভোগান্তি সইতে...