statue_99994
ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ৬৮ কেজি ওজনের বিষ্ণু মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার সকালে উপজেলার আজিমনগর ইউনিয়নের আজিনগর গ্রাম থেকে অবসরপ্রাপ্ত এক সেনা সদস্যের বাড়ি থেকে এটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। মূর্তিটির মূল্য ২০ কোটি টাকার বেশি বলে জানিয়েছে প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ।

আটককৃতরা হলেন সাবেক সেনা সদস্য সারোয়ার মিয়া, তার স্ত্রী নার্গিস বেগম ও ঘারুয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলমগীর মাতুব্বর।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেনা সদস্য (অব.) সরোয়ার মিয়ার বাড়িতে পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে ঘরের মেঝেতে লুকানো বিষ্ণু মূতির্টি উদ্ধার করে। পুলিশ এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করে। আটককৃত নার্গিস বেগম জানায়, কিছুদিন আগে বাড়ির পাশে পুকুর খননের সময় তারা মূর্তিটি পায়।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘মূর্তিটি থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। পরবর্তীতে আদালতের অনুমতি নিয়ে মূর্তিটি প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।’

ভাঙ্গা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাজমুল ইসলাম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, মূর্তিটির ওজন ৬৮ কেজি ৪৮০ গ্রাম। লম্বায় তিন ফুট ১০ ইঞ্চি ও চওড়ায় দুই ফুট ৫ ইঞ্চি। তিনি আরো জানান, এই ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়া রয়েছে।

সুরুজ বাঙালীশেষের পাতা
ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ৬৮ কেজি ওজনের বিষ্ণু মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার সকালে উপজেলার আজিমনগর ইউনিয়নের আজিনগর গ্রাম থেকে অবসরপ্রাপ্ত এক সেনা সদস্যের বাড়ি থেকে এটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। মূর্তিটির মূল্য ২০ কোটি টাকার বেশি বলে জানিয়েছে প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ। আটককৃতরা হলেন...