লাইফস্টাইল ডেস্ক। ডা. সঞ্চিতা বর্মন
হাত ও পায়ের জ্বালাপোড়া খুবই অস্বস্তিকর একটি অনুভূতি। বিশেষ করে গরমের সময় এই সমস্যা অনেকেরই হয়ে থাকে। চিকিত্সা বিজ্ঞানের ভাষায় একে পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথি বলা হয়। প্রধানত হাত-পায়ের স্নায়ু কোনো কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হলে হাতে-পায়ে জ্বালাপোড়া ভাব হতে পারে।

এছাড়াও অনিয়ন্ত্রিত ও দীর্ঘ দিনের ডায়াবেটিস, কিডনি ও থাইরয়েডের সমস্যা, শরীরে ভিটামিন বি১২ ও বি১ এর ঘাটতি, রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস, মদ্যপান, ছত্রাক সংক্রমণ, মহিলাদের মেনোপজের আগে ও পরে, অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা বা মানসিক চাপ, ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ইত্যাদি কারণে হাতে-পায়ে জ্বালাপোড়া হয়ে থাকে।

এই রোগের প্রধান উপসর্গ হলো হাত বা পায়ের পাতা দুটি মাঝে-মধ্যে জ্বলে উঠে। সুঁই ফোঁটার মতো বিঁধে। ঝিমঝিম বা অবশও লাগতে পারে। পায়ের স্নায়ু ঠিক আছে কিনা তা বোঝার জন্য তেমন কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন হয় না। তবে চিকিত্সকের কাছে গেলে তিনি একটি আলপিন বা টিউনিং ফর্ক ব্যবহার করেই হাত-পায়ের অনুভূতি যাচাই করতে পারেন।

তবে কিছু ক্ষেত্রে সচেতন থাকলে এই সমস্যা কমিয়ে রাখা সম্ভব। ডায়াবেটিস রোগীদের রক্তের গ্লুকোজের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। হাত-পায়ের যত্ন নিতে হবে। দুশ্চিন্তা ও মানসিক চাপ মুক্ত থাকতে হবে। কিডনি বা থাইরয়েডের সমস্যা থাকলে তার যথাযথ চিকিত্সা করতে হবে। স্নায়ুর যন্ত্রণা লাঘব করে এমন কিছু ওষুধ পাওয়া যায় তা সেবন করতে হবে।

লেখক: ত্বক, লেজার এন্ড এসথেটিক বিশেষজ্ঞ

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/06/21.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/06/21-300x214.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনস্বাস্থ্য কথা
লাইফস্টাইল ডেস্ক। ডা. সঞ্চিতা বর্মন হাত ও পায়ের জ্বালাপোড়া খুবই অস্বস্তিকর একটি অনুভূতি। বিশেষ করে গরমের সময় এই সমস্যা অনেকেরই হয়ে থাকে। চিকিত্সা বিজ্ঞানের ভাষায় একে পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথি বলা হয়। প্রধানত হাত-পায়ের স্নায়ু কোনো কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হলে হাতে-পায়ে জ্বালাপোড়া ভাব হতে পারে। এছাড়াও অনিয়ন্ত্রিত ও দীর্ঘ দিনের ডায়াবেটিস,...