FOLOUP
সমাজকল্যাণ মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মহসীন আলীর মৃতদেহ আজ রাতে সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় আনা হয়েছে।
রাত ১০টা ৪০ মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ার লাইন্সের একটি বিমানে মরহুমের মরদেহ ঢাকায় আনা হয়। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আ. স. ম. ফিরোজ, সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট প্রমোদ মানকিনসহ সরকারি কর্মকর্তা ও মন্ত্রীর স্বজনরা লাশ গ্রহণ করেন।
মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম প্রধান ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে এ কথা বলেন।
উল্লেখ্য, নয়দিন সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর সোমবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সৈয়দ মহসীন আলী মারা যান ।
সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে সোমবার রাতে জারিকৃত মন্ত্রীর জানাজা ও দাফন সংক্রান্ত এক প্রজ্ঞাপন থেকে জানা যায়, বিমান বন্দরে আনুষ্ঠানিকতা শেষে সমাজকল্যাণ মন্ত্রীর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে ৩৭ মিন্টু রোডস্থ মন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে। সেখানে কিছুক্ষণ রাখার পর রাতে বারডেম হাসপাতালের হিমাগারে সৈয়দ মহসীন আলীর লাশ রাখা হবে। পরদিন সকাল ৮টায় সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য মন্ত্রীর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। সেখানে অন্তত এক ঘণ্টা মরদেহ রাখার পর জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় সমাজকল্যাণ মন্ত্রীর প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে একটি সরকারি হেলিকপ্টারে করে মরদেহ মৌলভীবাজার জেলা স্টেডিয়ামে নেয়া হবে। সেখান থেকে মন্ত্রীর নিজ বাড়িতে মৃতদেহ নেয়া হবে।
পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মাগরিবের আগেই প্রয়াত এ মন্ত্রীর মরদেহ হযরত সৈয়দ শাহ মোস্তফা (রহ.) মাজার সংলগ্ন কবরস্থানে দাফন করা হবে।

নৃপেন পোদ্দারপ্রথম পাতা
সমাজকল্যাণ মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মহসীন আলীর মৃতদেহ আজ রাতে সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় আনা হয়েছে। রাত ১০টা ৪০ মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ার লাইন্সের একটি বিমানে মরহুমের মরদেহ ঢাকায় আনা হয়। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আ. স. ম. ফিরোজ, সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট...