1437465564
প্রত্যেকেই চান তার ত্বক যেন সুস্থ ও সুন্দর হয়। এজন্য বিভিন্ন প্রসাধনী ব্যবহারের পাশাপাশি কম কষ্ট করেন না তারা। এতে ত্বক সাময়িকভাবে সুস্থ এবং সুন্দর দেখালেও ভবিষ্যতে এগুলো ত্বকের উপর নানা ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে। এর ফলে ত্বকের নানা সমস্যাসহ যে কেউ অল্প বয়সেই বুড়িয়ে যেতে পারে। অথচ এমন কিছু সাধারণ কাজ আছে যা নিয়মিত করলে সহজেই সুস্থ ও সুন্দর ত্বক পাওয়া সম্ভব হয়। এতে সময়ের পাশাপাশি অর্থও বেঁচে যায়। সেইসঙ্গে পরিশ্রমও কম হয়।

জেনে নিন সুস্থ ও সুন্দর ত্বক পেতে কী করবেন-

প্রচুর পরিমাণে সবজি ও ফলমুল খান
সুস্থ এবং সুন্দর ত্বক পেতে বেশি করে ফল এবং সবজি খাওয়ার বিকল্প নেই। তবে রঙ্গিন ফলমূল নিয়মিত খেলে ত্বক অনেক বেশি আকর্ষণীয় হয়। কারণ এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকায় তা ত্বকের ভাঁজ ও বয়স কম রাখতে সাহায্য করে।

দিনে দুইবার মুখ পরিষ্কার করুন
দিনে দুইবার মুখ ধোয়াটাই আদর্শ। এর বেশি মুখ ধুলে ত্বকের স্বাভাবিক তেল চলে যায়। তখন মুখ হয়ে ওঠে শুষ্ক। এছাড়া স্ক্রাবার দিয়ে মুখ ধুলে অনেক সময়ে ত্বকে অতিরিক্ত ঘষা লেগে আরো বেশি ক্ষতি হয়। তবে মুখ পরিষ্কারের পর সুতি কাপড় দিয়ে তা মুছে ফেলাই ভালো।

চোখের আশেপাশে সানস্ক্রিন মাখবেন না
চোখের আশেপাশের ত্বক স্পর্শকাতর হওয়ায় সানস্ক্রিন মাখা থেকে বিরত থাকুন। তা না হলে অনেক ক্ষতি হতে পারে। সানস্ক্রিন মাখার বদলে ভালো মানের একটি সানগ্লাস ব্যবহার করতে পারেন।

হালকা পোশাক পরলে সানস্ক্রিন মাখুন
শরীরের যেসব অংশ সূর্যের আলোয় আসে সেখানে কিন্তু সানস্ক্রিন মাখতে ভুলে যাবেন না। অনেক সময়ে দেখা যায় আমরা হালকা রঙের বা পাতলা কাপড়ের পোশাক পরে বের হই। এসব পোশাক সম্পূর্ণভাবে সূর্যের আলোকে ঠেকাতে পারে না, তাই ক্ষতি হয়। এ কারণে প্রয়োজনমতো সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

চিত হয়ে ঘুমানোর অভ্যাস করুন
বেশিরভাগ মানুষই কোনো একদিকে কাত হয়ে অথবা উপুড় হয়ে ঘুমাতে ভালোবাসেন। কাত হয়ে বা উপুড় হয়ে ঘুমালে মুখের ত্বকে ভার পড়ে, এতে অকালেই ত্বকে ভাঁজ পড়তে পারে। কাজেই চিত হয়ে ঘুমানোর অভ্যাস গড়ে তুলুন। সুস্থ এবং সুন্দর ত্বক পেতে এই অভ্যাসটা বেশি দরকার।

বছরে একবার ত্বক বিশেষজ্ঞকে দেখান
ত্বকের যত্নে বছরে একবার হলেও ডাক্তার দেখান উচিত। এতে ত্বকের যে কোন সমস্যার সমাধান করা সহজ হয়। কাজেই সুস্থ এবং সুন্দর ত্বকের জন্য বছরে একবার ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

ওয়াজ কুরুনীস্বাস্থ্য কথা
প্রত্যেকেই চান তার ত্বক যেন সুস্থ ও সুন্দর হয়। এজন্য বিভিন্ন প্রসাধনী ব্যবহারের পাশাপাশি কম কষ্ট করেন না তারা। এতে ত্বক সাময়িকভাবে সুস্থ এবং সুন্দর দেখালেও ভবিষ্যতে এগুলো ত্বকের উপর নানা ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে। এর ফলে ত্বকের নানা সমস্যাসহ যে কেউ অল্প বয়সেই বুড়িয়ে যেতে পারে। অথচ এমন...