1440405410_th
সাতক্ষীরার গাজিপুর সীমান্তের বিপরীতে ভারতের পাকিরডাঙ্গা কালুতলা এলাকায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) এক সদস্যের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় বিএসএফ বাংলাদেশের ১৩ সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ফলে দুই সীমান্তে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে।

আজ সোমবার সকালে বিএসএফ সদস্যের মৃতদেহ স্থানীয় একটি ব্রিজের নিচে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সাতক্ষীরাস্থ ৩৮ ব্যাটেলিয়ন অধিনায়ক মেজর নজির আহমেদ বকশি ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, আজ সোমবার সাতক্ষীরার ভোমরা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে বিএসএফ এই তথ্য দিয়েছে।

বিএসএফএর বরাত দিয়ে তিনি জানান, গতকাল রোববার রাতে বিএসএফের পাকিরডাঙ্গা কালুতলা ক্যাম্পের সদস্য গোবিন্দ সিং সীমান্তে টহলে ছিলেন। এর কোনো এক সময় তিনি মারা যান। অসুস্থতার কারণে পানিতে পড়ে তার স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে বলেও জানতে পেরেছেন তিনি।

অপরদিকে বিএসএফ’এর দাবি তাকে পানিতে ফেলে দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে বিএসএফ ১৩ বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করে বসিরহাট থানা পুলিশে সোপর্দ করেছে।

এদিকে এ ঘটনা নিয়ে ভোমরায় অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে ছিলেন- বিজিবি অধিনায়ক মেজর নজির আহমেদ বকশি ও ভারতের পক্ষে ছিলেন- বিএসএফএর ১৪৪ ব্যাটেলিয়ন কমান্ডান্ট শ্রী রত্নেশ্বর কুমার। বিজিবি গ্রেপ্তার হওয়া বাংলাদেশিদের ফেরত দেওয়ার দাবি জানালেও বিএসএফ আইনি প্রক্রিয়ার কথা জানিয়েছে।

ওয়াজ কুরুনীজাতীয়
সাতক্ষীরার গাজিপুর সীমান্তের বিপরীতে ভারতের পাকিরডাঙ্গা কালুতলা এলাকায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) এক সদস্যের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় বিএসএফ বাংলাদেশের ১৩ সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ফলে দুই সীমান্তে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। আজ সোমবার সকালে বিএসএফ সদস্যের মৃতদেহ স্থানীয় একটি ব্রিজের নিচে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়। বর্ডার...